চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯

সীতাকুণ্ডে দুলাল বাহিনীর প্রধানকে ধরতে মরিয়া পুলিশ

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৬ ১৯:৫০:২৫ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১৭ ০৯:০৬:২২

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি:

দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙিয়ে এলাকায় বব্যসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদাবাজি, ইয়াবা ব্যবসাসহ নানা অপরাধের হোতা দুলাল বাহিনীর প্রধান নুরুল কবির দুলালকে গ্রেফতার করতে মরিয়া সীতাকুণ্ড মডেল থানার পুলিশ।

শুক্রবার উপজেলা বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়েও তাকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। তার বিরুদ্ধে শুক্রবার একটি হত্যা মামলা থানায় রেকড হওয়ার পর তার কু-কৃতি শনিবার জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় প্রকাশিত হলে উপজেলার বিভিন্নস্থন থেকে একাধিক লোক থানায় অভিযোগ নিয়ে হাজির হয়। পুলিশ অভিযোগগুলো যাচাই বাচাই করছে বলে জানিয়েছেন। এদিকে পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় দৈনিক ইত্তেফাক প্রতিনিধি মীর দিদারুল হোসেন টুটুল ও সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি এম সেকান্দর হোসাইনের বিরুদ্ধে সে ও তার বাহিনীর সদস্যরা ফেজবুক ওয়ালে নানা কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেন। সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য থানার ওসিকে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন।

সীতাকুণ্ডের বাসিন্দা জয়নাল আবেদীন ও মামুন-উর রশিদ জানায়, সে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের এক কর্মকর্তার ও পুলিশের পরিচয় দিয়ে এলাকার কয়েক বছর ধরে গণহারে চাঁদাবাজি করে আসছিলো। বিষয়টি থানার পুলিশকে জানানো হয়েছে। এছাড়া গত বৃহস্পতিবার সীতাকুণ্ডে এয়াকুবনগরবাসী তাকেসহ তার বাহিনীর সদস্যদের আটক করতে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে।

মামলার বাদী নবী উদ্দিন জনি বলেন, দুলালসহ তার বাহিনীর সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা দাবি করে আসছিলো। আমি চাঁদা না দেওয়াতে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা করে। পরবর্তীতে সে ও তার বাহিনীর সদস্যরা আমার উপর হামলা করে। চিকিৎসা শেষে শুক্রবার থানায় মামলা দায়ের করি।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই সুজায়েত হোসেন বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর অসংখ্য অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। অভিযোগগুলো যাচাই বাচাই করা হচ্ছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে একটি মামলার পক্রিয়াধীন আছে।