চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯

বিএসএমএমইউতে আনা হচ্ছে খালেদা জিয়াকে

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১০ ১১:২০:১২ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১০ ১৭:১৬:১৪

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে আনা হচ্ছে। রোববার (১০ মার্চ) বিএসএমএমইউ হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল্লাহ আল হারুন সারাবাংলাকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের বিশেষ কারাগার থেকে বেলা ১২ টার পরে তাকে বিএসএমএমইউতে নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে কারাগারসূত্র। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের কেবিন ব্লকের ৬২১ ও ৬২২ নম্বর কেবিন খালেদা জিয়ার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে।

এদিকে, নাজিমুদ্দিন রোডের বিশেষ কারাগারের সামনে দায়িত্বরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন পুলিশ কর্মকর্তা সারাবাংলাকে বলেন, উনাকে নেওয়ার জন্য সবন ধরণের প্রস্তুতি আমরা নিয়েছি। উনি রেডি হলেই আমরা রওনা দেব। কারাগার ও হাসপাতাল এলাকায় অতিরিক্ত নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য শিগগিরই বিএসএমএমইউতে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দুপুরে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে কথা বলতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যান বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল। তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় একটি বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সেই বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ীই তার চিকিৎসা চলছে। যেহেতু এটা আদালতের নির্দেশ, তাই বোর্ড যেমন বলছে তেমনভাবেই সব চলছে।

বিএনপি নেতারা বৈঠকে কী বলেছেন জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য ইউনাইটেড হাসপাতালে নিতে চেয়েছেন। কিন্তু যেহেতু আদালতের নির্দেশ আছে তাই বোর্ড যা সিদ্ধান্ত নেবে তাই হবে। তিনি বলেন, ‘আইজি প্রিজনকে বলে দিচ্ছি, বোর্ডের কথা অনুযায়ীই যেন তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়।’

একজন নারী চিকিৎসক একদিন পর পর খালেদা জিয়াকে দেখতে যান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এখন তার যে সমস্ত পরীক্ষা নিরীক্ষার কথা বলা হয়েছে সেগুলোর জন্য শিগগরিই তাকে বিএসএমএমইউতে নেওয়া হবে। বোর্ডের নির্দেশনা ছিল যে তার কিছু পরীক্ষা করাতে হবে। সেগুলো হয়তো কারাগারের ভেতরে করা সম্ভব হবে না। সেজন্য তাকে হাসপাতালে নেওয়া হবে। তার যেন সুচিকিৎসা হয় সে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’