চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯

পাক-ভারত উত্তেজনা: বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সুষমার ফোনালাপ

প্রকাশ: ২০১৯-০২-২৭ ১৪:১৭:৪৭ || আপডেট: ২০১৯-০২-২৭ ১৪:১৭:৫৩

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, সিঙ্গাপুর ও আফগানিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন। সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে ইকোনমিক টাইমস জানিয়েছে, পাকিস্তানে পরিচালিত বিমান হামলার বিষয়ে আলোচনা করেছেন তারা।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মিরের পুলওয়ামাতে ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের’ গাড়ি বহরে আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এতে বাহিনীটির অন্তত ৪০ জন সদস্য প্রাণ হারিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের ভেতরে বোমাবর্ষণ করে। ভারত জানিয়েছে, জইশ-ই-মোহাম্মদ জঙ্গি সংগঠনের ঘাঁটিই ছিল তাদের লক্ষ্য।

ভারতীয় সরকারি সূত্রগুলোর ভাষ্য, ফোনালাপে সুষমা স্বরাজ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওকে জানিয়েছেন, কেন ভারতকে এই হামলা চালাতে হয়েছে। তিনি নিশ্চিত করেছেন, ভারত শুধুমাত্র জইশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটিকেই লক্ষ্য বানিয়েছে।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইকে তিনি বলেছেন, প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা থেকেই ভারত ওই বিমান হামলা চালিয়েছে।

বাংলাদেশ, সিঙ্গাপুর ও আফগানিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদেরও তিনি জইশ ই মোহাম্মদের ঘাঁটিতে হামলা চালানোর বিষয়ে ভারতের অবস্থান তুলে ধরেন। তবে এ ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এখনও কিছু জানায়নি।

এসব দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ছাড়াও ভারতের পক্ষ থেকে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স এবং যুক্তরাজ্যের মতো প্রভাবশালী দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। ভারত সরকারের সংশ্লিষ্ট সূত্রটি দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোকে জানিয়েছে, সুষমা স্বরাজ ভারতের বিরোধী দলের নেতাদেরও হামলার বিষয়ে অবহিত করেছেন।

সর্বদলীয় এক আলোচনা সভার পর সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন, দেশটির সবগুলো রাজনৈতিক দল সরকারের সন্ত্রাসবিরোধী অবস্থানের প্রতি সমর্থ জানিয়েছে ও সশস্ত্র বাহিনীর প্রশংসা করেছে।