চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯

গণশুনানিতে সবাই গণঘুমানিতে ব্যস্ত ছিল: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০১৯-০২-২৬ ১৬:৩২:৩১ || আপডেট: ২০১৯-০২-২৬ ১৬:৩২:৩৯

জনগণের চোখে ধুলা দেয়ার জন্য গণশুনানির একটি নাটক মঞ্চায়ন করা হয়েছিল। জনগণের কাছে এই গণশুনানি কোনো আবেদন সৃষ্টি করতে পারেনি। বললেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ক্লাইমেন্ট চেঞ্জ রিপোর্টার্স ফোরাম (সিজিআরএফ) কার্যনির্বাহী কমিটির সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনে গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গণশুনানির একটি নাটক মঞ্চায়ন করেছিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখলাম গণশুনানির সময় তারা সবাই ঘুমাচ্ছে। নেতারা সবাই গণঘুমানিতে ব্যস্ত ছিল। জনগণের চোখে ধুলা দেয়ার জন্য গণশুনানির একটি নাটক মঞ্চায়ন করা হয়েছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির একজন নেতা বলেছেন গণশুনানি করার পাশাপাশি তাদের নেতাদের শুনানি করা প্রয়োজন। নির্বাচনে কার কী ভূমিকা ছিল। আমি মনে করি আগে তাদের নেতাদের শুনানি করা প্রয়োজন কার।

বিদেশিদের সঙ্গে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের বৈঠকের সমালোচনা করে হাছান মুহমুদ বলেন, জনগণই ক্ষমতার মালিক। জনগণের বাইরে অন্য কেউ ক্ষমতার মালিক নন। বিএনপি বা ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের ঘন ঘন বিদেশিদের সঙ্গে দেখা করার মাধ্যমে তাদের রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব প্রকাশ পায়।

তিনি বলেন, দেশে কোনো কিছু হলেই তারা বিদেশিদের কাছে ধর্ণা দেয়। এটি দেশকে শুধু ধর্ণা করে তা নয়, তাদের নিজেদের এবং তাদের দলকেও অপমানিত করা হয়। আমি মনেকরি ধর্ণা দেয়া উচিত জনগণের কাছে, বিদেশিদের কাছে নয়।