চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিশ্ব ইজতেমা ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি

প্রকাশ: ২০১৯-০১-২৪ ২০:১৪:৪৬ || আপডেট: ২০১৯-০১-২৪ ২০:১৪:৫৪

পবিত্র হজের পর মুসলিম উম্মাহর সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সমাবেশ বিশ্ব ইজতেমা আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা দূর হয়েছে। অবশেষে তাবলিগ জামাতের দু’পক্ষের দ্বন্দ্বের অবসান হওয়ায় আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে টঙ্গীর তুরাগ তীরে আয়োজন হতে যাচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা।

আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি টঙ্গী ময়দানে এই ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। তবে এবার আর দুই দফায় নয়, একবারই ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) ধর্ম মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে ইজতেমার বিবদমান উভয়পক্ষের মুরুব্বিরাও উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে তাবলিগ জামাতের দ্বন্দ্ব নিরসনে বিবদমান দুই পক্ষকে এক করা হয়। ফেব্রুয়ারি মাসে দুপক্ষ এক হয়ে ইজতেমা আয়োজন করবে বলে একমত হয়েছিল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর উপস্থিতিতে তাবলিগ নেতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠক এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। বৈঠকে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষে নেতৃত্ব দেন মাওলানা জুবায়ের ও মাওলানা ওয়াসিফুল।

ওই দিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তাবলিগের দুই পক্ষকে এক করা হয়েছে। তারা এক হয়ে এবার ইজতেমা আয়োজন করবে। ইজতেমা ঘিরে থাকবে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রয়োজনে সেনাবাহিনী দায়িত্ব পালন করবে।’

বুধবারের (২৩ জানুয়ারি) বৈঠক শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেছিলেন, ‘তাবলিগ জামাতের দুটি পক্ষ ও তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব-সংঘর্ষ এবং ইজতেমা নিয়ে রিট করার বিষয়টি তাদের কলঙ্কিত করেছে। তাবলিগ সম্পর্কে মানুষের ধারণাকে আঘাত করেছে। রিট করার বিষয়টি দেশে-বিদেশে সমালোচিতও হয়েছে। আমরা ইজতেমা নিয়ে সমালোচনা চাই না।’