চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৯

আগামীকাল নবনির্বাচিতদের, মঙ্গলবার হতে পারে মন্ত্রিসভার শপথ

প্রকাশ: ২০১৯-০১-০২ ১১:০৩:৩৫ || আপডেট: ২০১৯-০১-০২ ১৪:০৬:০২

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের শপথ আগামীকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। আর মহাজোট সরকারের তৃতীয় মেয়াদে যারা মন্ত্রিসভায় স্থান পাবেন তাদের শপথ আগামী মঙ্গলবার (৬ জানুয়ারি) হতে পারে বলে জানা গেছে।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় নতুন সংসদ সদস্যদের শপথ হতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচিতদের গেজেট প্রকাশ করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আর আগামী মঙ্গলবার নতুন মন্ত্রিসভার শপথ হতে পারে। জাতীয় সংসদ সচিবালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়ে এগুচ্ছে।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সঙ্গে সংলাপে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু সংসদ সদস্যদের শপথের তারিখ উল্লেখ করে বলেন, নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা আগামী ৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার শপথ নেবেন। তবে বিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত সাত প্রার্থী শপথ নেবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। এ বিষয়ে দোটানায় রয়েছেন জোট নেতারা। যদিও জোটের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যেহেতু তারা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছেন তাই এমপি হিসেবে শপথ নেয়ার সুযোগ নেই। তারা শপথ না নিলে এই আসনগুলোতে নতুন নির্বাচন হতে পারে।

জাতীয় সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন নতুন এমপিদের শপথবাক্য পাঠ করাবেন। শপথ কক্ষের ধারণ ক্ষমতা কম হওয়ায় দুই দফায় শপথ হবে।

এদিকে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ হওয়ার পর নবনির্বাচিতদের নাম-ঠিকানাসহ গেজেট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

মঙ্গলবার রাতে ২৯৮টি আসনে নির্বাচিতদের নাম ঠিকানাসহ গেজেট প্রকাশ করে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

ইসির যুগ্ম-সচিব (জনসংযোগ) এসএম আসাদুজ্জামান পরিবর্তন ডটকমকে জানান, গেজেট প্রকাশের জন্য প্রেসে পাঠানো হয়েছে।

রীতি অনুযায়ী, গেজেট প্রকাশের পর শপথের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্পিকারের কাছে তা পাঠাবে ইসি সচিবালয়।

সংসদ নির্বাচনের ফল গেজেট আকারে প্রকাশের তিন দিনের মধ্যে শপথের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এরপর ৩০ দিনের মধ্যে অধিবেশন ডাকতে হবে। তবে ভোটের কত দিন পর গেজেট হবে, সেই বিষয়ে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।

একাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরুর ৯০ দিনের মধ্যে স্পিকারকে অবহিত না করলে বা শপথ না নিলে সদস্য পদ খারিজ হবে।