চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯

রামগড়ে নির্বাচনী প্রচারণায় দাওয়া-পাল্টা দাওয়া; প্রতিবাদে আ.লীগের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশ: ২০১৮-১২-১৫ ১২:১১:০৬ || আপডেট: ২০১৮-১২-১৫ ১২:১১:১২

করিম শাহ
রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধিঃ

জেলার রামগড় পৌরসভার সোনাইপুল বাজারে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার সময় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির নির্বাচনী শোডাউনে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির প্রায় ১৯জন নেতাকর্মী আহত হওয়ায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর উপজেলা আওয়ামীলীগ দলীয় কার্যালয়ে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় সংবাদ সম্মেলন করে। অপরদিকে খাগড়াছড়িতে প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা বিএনপি ও অংগ সংগঠন বিক্ষোভ মিছিল করেছে বলে জানা গেছে।


সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক কাজী নুুরুল আলম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, নৌকা প্রতীকের পক্ষে চলমান গণসংযোগের সময় পৌরসভার সোনাইপুুল বাজারে বিএনপি তথা ঐক্যফন্টের সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র্র নিয়ে নৌকা প্রতীকের প্রচার মাইকে বাধা দিয়ে পরিকল্পিত হামলা চালায়। হামলায় নৌকা সমর্থিত ৪ কর্মী আহত হয়। তারা হলেন, নাচির উদ্দিন, অপু দাস, আবু তাহের ও মোঃ সোহেল। আহতরা রামগড় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নির্বাচন বানচাল করতে ঐক্যফ্রন্টের লোকজন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা ভিক্তিহীন অভিযোগ দিয়ে নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে বলে অভিযোগ করা হয়। এসময় কাউন্সিলর বাদশা মিয়া ও উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাউচার হাবিব শোভন ছাড়াও দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


অপরদিকে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল জানান, ধানের শীর্ষের শান্তিপূর্ণ প্রচারণায় আওয়ামীলীগ-ছাত্রলীগ বিনা প্ররোচনায় বিএনপির উপর হামলা চালিয়ে শ্রমীক দলের সভাপতি কামাল উদ্দিন (৪০) সহ আরো ১৪ নেতা-কর্মীকে গুরতর আহত করে। কামাল উদ্দিকে রামগড় হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে তিনি জাাননা। নির্বাচন থেকে দুরে রাখতে তারা প্রশাসনের সামনে পরিকল্পিত এ হামলা বলে তিনি অভিযোগ করেন।