চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯

রামগড়ে আ.লীগ ও বিএনপির মধ্যে দাওয়া-পাল্টা দাওয়া; আহত-১৯

প্রকাশ: ২০১৮-১২-১৫ ০০:০০:৪৫ || আপডেট: ২০১৮-১২-১৫ ০০:০০:৫৩

রিম শাহ
রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি

জেলার রামগড় পৌরসভার সোনাইপুল বাজারে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার সময় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির নির্বাচনী শোডাউনে ধাওয়া-পাল্টা দাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির প্রায় ১৯জন নেতাকর্মী আহত হওয়ায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর উপজেলা আওয়ামীলীগ দলীয় কার্যালয়ে সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করে। অপরদিকে খাগড়াছড়িতে প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা বিএনপি ও অংগ সংগঠন বিক্ষোভ মিছিল করেছে বলে জানা গেছে।


পুশিল ও স্থানিয়রা জানান, খাগড়াছড়ি আসনের বিএনপি সর্মর্থিত শহিদুল ইসলাম ভূইয়ার পক্ষে ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির নেতাকর্মীরা পৌরসভার সোনাইপুল বাজারে নির্বাচনী শোড়াইন শেষে বাজারে বক্তব্য প্রধান করার সময় অপরদিকে থেকে আওয়ামীলীগ সমর্থীত কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার পক্ষে নৌকা প্রতীকে একটি শোডাউন অতিক্রম করা কালীন দাওয়া-পাল্টা দাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উপজেলা বিএনপির শ্রমিক দলের সভাপতি কামাল হোসেন সহ বেশ কয়েকজন কর্মী আহত ও আওয়ামীলীগের নাছির উদ্দিন, অপু দাস, আবু তাহের ও মোঃ সোহেল আহত অবস্থায় রামগড় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে বিএনপি নেতা কামাল হোসেন কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতারে রেফার করা হয়েছে।


হামলার ঘটনা অস্বিকার করে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক কাজী নুরুল আলম জানান, বিএনপি নির্বাচন বানচাল করতে পরিকল্পিতভাবে আওয়ামীলীগের প্রচার গাড়ীতে বাধা দিয়ে পরিস্থিতি উপ্তত্ত করে হামলা চালায় এবং নেতাকর্মীদের ভবিষ্যতে দেখে নেয়ার হুমকি দিচ্ছে। এসময় বিএনপির প্রচার গাড়িতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রচারণা চালানোর অভিযোগ করেন ।


অপরদিকে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল জানান, আওয়ামীলীগ বিএনপির প্রচার গাড়িতে হামলা চালিয়ে এক নেতাকে গুরতর আহতসহ আরো ১৪ নেতাকর্মী কে মারধর করেছে। নির্বাচন থেকে দুরে রাখতে তারা প্রশাসনের সামনে পরিকল্পিত হামলা চালায়। দলীয় সিন্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী প্রদক্ষেপের কথা তিনি জানান।