চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রামে যাদের মনোনয়ন বৈধ

প্রকাশ: ২০১৮-১২-০২ ২৩:১১:৫১ || আপডেট: ২০১৮-১২-০৩ ১১:৩৭:২৭

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রামে ১৮৩ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শুরু হয়েছে রোববার (২ ডিসেম্বর)। যাচাই-বাছাই শেষে আগামী ৯ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন চূড়ান্ত প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হবে।

এ পর্যন্ত মনোনয়ন যাদের মনোনয়ন বৈধ করা হয়–

চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রাথী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। বিএনপির কামাল উদ্দিন আহাম্মেদ, মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, ইসালামিক ফ্রন্ট এর প্রার্থী আব্দুল মন্নান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর প্রার্থী মোঃ সামসুদ্দীন, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, গণ ফেরামের প্রার্থী নুর উদ্দিন আহমেদ।

চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে তরিকত ফেডারেশনের নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী, বিএনপির নুরী আরা সাফা, বিএনপির মো. আজিম উল্লাহ বাহার, বিএনপির আলহাজ্ব সালাহ উদ্দিন, বিএনপির ডা. খুরশিদ জামিল চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী এটি এম পেয়ারুল ইসলাম, ইসলামী ফ্রন্টের মীর মো. ফেরদৌস আলম, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মো. সাইফুদ্দিন, বিকল্প ধারার মো. মাজাহারুল হক শান্ত, জাতীয় পার্টির জহিরুল ইসলাম রেজা ও ইসলামী আন্দোলনের মো. আতিকের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহফুজুর রহমান মিতা, বিএনপির মো. নুরুল আবছার, ইসলামী আন্দোলনের মাওলানা মনসুরুল হক, এনপিপির মো. মোকতানের আজাদ খানের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুণ্ড) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য দিদারুল আলম, বিএনপির মনোনীত সাবেক আইজিপি ওয়াই বি সিদ্দিকী ও উত্তর জেলা কৃষক দলের সভাপতি ইসহাক কাদের চৌধুরী, জাতীয় পার্টির দিদারুল কবির, আবুল বাশার মো. জয়নুল আবেদীন, মোজাম্মেল হোসেন ও আশরাফ হোসেন বৈধ হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসনে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মহাজোটের সংসদ সদস্য প্রার্থী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদের মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করা হয়।

চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে আ’লীগের সংসদ সদস্য ফজলে করিম চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ড. হাছান মাহমুদ, বিএনপির মো. শওকত আলী নুর, মো. কুতুব উদ্দিন বাহার, ইসলামী আন্দোলনের মো. নিয়ামত উল্লাহ, এলডিপির মো. নুরুল আলম, ইসলামী প্রন্টের মো. আবু নওশান, জেএসডি’র মো. মাহাবুবুর রহমান, এনডিপির মো. জিয়াউর রহমান ও ইসলামী ফ্রন্টের আহমদ রেজার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী) আসনে আওয়ামী লীগের মইনুদ্দিন খান বাদল ও নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ানের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়। এছাড়া এমদাদুল হক, ইসলামী ফ্রন্টের স.ম. আবদুস সামাদ, ফাতেমা খুরশীদ সুমাইয়া, বাপন দাশগুপ্ত, সেহাব উদ্দীন ও এস এম ইকবাল হোসেন।

চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী-বাকলিয়া) আসনে আওয়ামী লীগের ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিএনপির সংসদ সদস্য প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন, ওয়ার্কার্স পার্টির মো. আবু হানিফ, কমিউনিস্ট পার্টির মৃণাল চৌধুরী, ইসলামিক ফ্রন্টের মো. ওয়াহেদ মুরাদ, ইসলামী আন্দোলনের শেখ আমজাদ আলী, ন্যাপের আলী নেওয়াজ খান ও খেলাফত আন্দোলনের মৌলভী রশিদুল হকের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম-১০ আসনে আওয়ামী লীগের ডা. আফছারুল আমিন, বিএনপির আবদুল্লাহ আল নোমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের জান্নাতুল ইসলাম, বাসদের মো. মহিন উদ্দিন, স্বতন্ত্রের সাবিনা খাতুন, বিএনএফের জিএমএম আতিউল ওয়াসীম, ওয়ার্কার্স পার্টির সৈয়দ মো. হাসান মারুফ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী (জামায়াতে ইসলামী) শাজাহান চৌধুরীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর-পতেঙ্গা) আসনে আওয়ামী লীগের এম এ লতিফ, বিএনপির আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও জেএসডির ক্যাপ্টেন শহীদ উদ্দিন মাহবুব এর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনে আওয়ামী লীগের মো. সামশুল হক চৌধুরী, বিএনপির গাজী মোহাম্মদ শাহজাহান, মোহাম্মদ এনামুল হক, ইসলামী আন্দোলনের মোহাম্মদ দেলওয়ার হোসেন, ইসলামীক প্রন্টের মোহাম্মদ মইন উদ্দিন চৌধুরী, এম এ মতিন, ্লডিপির নাহিদ ফারহানা, বিএনএফ’র দীপক কুমার পালিত, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ নুরুচ্ছফা সরকার ও বাসদের সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ ইউনুসের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনে আওয়ামী লীগের সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, বিএনপির সরওয়ার জামাল মিজান, মোস্তাফিজুর রহমান, ইসলামী ফ্রন্টের এম এ মতিন, ইসলামী অন্দোলনের মোহাম্মদ ইরফানুল হক চৌধুরী, খেলাফত আন্দোলনের মৌলভী রশিদুল হক, ও ইসলামিক ফ্রন্টের জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ-সাতকানিয়া একাংশ) আসনে আওয়ামী লীগের মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী, এলডিপির ড. অলি আহমদ, ইসলামী ফ্রন্টের সিহাব উদ্দিন মোহাম্মদ আব্দুস সামাদ, ইসলামিক ফ্রন্টের মোহাম্মদ দেলাওয়ার হোসেন, মোওলানা জানে আলম নিজামী, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির আব্দুল নবী, ন্যাপের মোহাম্মদ আলী নেওয়াজ খান, জাতীয় পার্টির আ জ ম অলি উল্লাহ চৌধুরী মাসুদ ও জাসদের সুশময় চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১৫ ( সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে আওয়ামী লীগের আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী, স্বতন্ত্র জামায়াতে আ. ন. ম শামসুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলনের নুরুল আলম, গণফোরামের আব্দুল মোমেন চৌধুরী, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ফজলুল হক এ বিএনপির অধ্যাপক শেখ মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনে আওয়ামী লীগের মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, বিএনপির জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, স্বতন্ত্রের বজল আহমদ, এলডিপির মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন চৌধুরী, ইসলামিক ফ্রন্টের মনিরুল ইসলাম, মোহাম্মদ মহিউল আলম চৌধুরী ও ন্যাপের আশীশ কুমার শীলের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।