চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

মালয়েশিয়া পাচারকালে ১০ রোহিঙ্গা উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৮-১১-৩০ ১১:১৭:৩৮ || আপডেট: ২০১৮-১১-৩০ ১১:১৭:৩৮

মালয়েশিয়া পাচারকাজে জড়িত থাকার অভিযোগে বাড়ি মালিক আবদুর রহমানকে আটক করা হয়। তিনি ওই এলাকার ফজলুল হকের ছেলে।

সাগরপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া পাচারের প্রস্তুতির সময় কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা থেকে নারীসহ ১০ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-৭)

আজ শুক্রবার ভোরে উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ মাজেরপাড়া এলাকার আবদুর রহমানের বাড়ি থেকে ওই রোহিঙ্গাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার রোহিঙ্গারা হলেন- জিয়াউর রহমান (৩০), জাবের আলম (৩৫), রশীদ উল্লাহ (৩০), নুরুল আলম (২৮), রোজিনা (২৫), জান্নাত আরা (২৭), জুলেখা বেগম (২০), মোছাদ্দেকা(২৫), সেতেরা বেগম (২২) ও সাদিকা (২০)।

তাদের মধ্যে পাঁচজন কুতুপালং, তিনজন থাইংখালী, একজন টেকনাফের জাদিমোরা ও একজন মুচনি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা। তারা সবাই মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

এসময় মালয়েশিয়া পাচারকাজে জড়িত থাকার অভিযোগে বাড়ি মালিক আবদুর রহমানকে আটক করা হয়। তিনি ওই এলাকার ফজলুল হকের ছেলে।

র‍্যাব-৭ সিপিসি-২ টেকনাফ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেফট্যানেন্ট মির্জা সাহেদ মাহতাব বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতেখবর পাওয়া যায় আবদুর রহমানের বাড়িতে কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা অবৈধভাবে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য অবস্থান করছে। পরে অভিযান চালিয়ে নারীসহ ১০ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়। আবদুর রহমানকে সংশ্লিষ্ট আইনে আটক দেখিয়ে টেকনাফ পুলিশের কাছে হস্তান্তের প্রক্রিয়া চলছে।