চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

‘সব সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং করা হবে’

প্রকাশ: ২০১৮-১১-২৬ ২১:৫৮:৫২ || আপডেট: ২০১৮-১১-২৭ ১১:১০:৫৩

নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কোন অপপ্রচার করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর সেজন্যে এখন থেকে সকল সোশ্যাল মিডিয়া মনিটর করা হবে।

সোমবার (২৬ নভেম্বর) বিটিআরসি মোবাইল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠকের পর নির্বাচন কমিশন সচিব এসব কথা বলেন।

হেলালুদ্দিন আহমদ বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ করা যায় না। কিন্তু মনিটরিংয়ে রাখলে যারা এটি ব্যবহার করে গুজব ছড়াবে, তাদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া সহজ হবে।

আর তাই বিটিআরসি, এমটিআরসি, এমটিএমসি, সাইবার ক্রাইম ইউনিটসহ সরকারের সংশ্লিষ্টরা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়া পর্যন্ত এ বিষয়টি মনিটর করবে, এবং সময়-সময় ইসিকে অবহিত করবে বলে সবাইকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

ইসি সচিব বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনও সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়ে কেউ যাতে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ বা বানচাল করতে না পারে সেজন্য সংশ্লিষ্টরা চব্বিশ ঘণ্টা মনিটর করবে। অধিকাংশ ফেসবুক আইডি নজরদারিতে থাকবে।

তিনি বলেন, কেউ প্রোপাগান্ডা ছড়ালে তাকে চিহ্নিত করে ইসির সম্মতিতে বিদ্যমান আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে ডিজিটাল আইন, আইসিটি অ্যাক্টসহ যেসব আইন রয়েছে তার আলোকেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নির্বাচনের যেসব প্রচার হচ্ছে, সেগুলো ইসির নির্ধারিত আচরণবিধির আওতায় পড়ে না। তবে নির্বাচন বানচালের মতো প্রচার চালালে দেশের বিদ্যমান আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।