চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রাম থেকে সাবেক প্রতিমন্ত্রী এহছানুল হক মিলন গ্রেফতার

প্রকাশ: ২০১৮-১১-২৩ ১০:২৪:০৬ || আপডেট: ২০১৮-১১-২৩ ১৮:৫৫:২৭

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আলোচিত শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আ ন ম এহসানুল হক মিলনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার পর চট্টগ্রাম মহানগরের চকবাজার থানার এক শ গজ অদূরের ৪৫২ চট্টেশ্বরী রোডের ‘মমতাজ ছায়ানীড়’ নামের বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সাবেক এ প্রতিমন্ত্রী এবার চাঁদপুরের কচুয়া থেকে বিএনপির প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করতে নির্বাচন কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চাঁদপুর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) মিজাজুর রহমান এহসানুল হক মিলনকে গ্রেফতারের খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুর জেলা ডিবির অফিসার ইনচার্জ মো. মামুন মিয়ার নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবির) একটি টিম আগের দিন চট্টগ্রামে অভিযান চালায়। এর আগে প্রযুক্তি ও নিজস্ব সোর্সের মাধ্যমে সাবেক এ প্রতিমন্ত্রীর অবস্থান নিশ্চিত হয় তারা। বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে অভিযানে চট্টগ্রাম মহানগর ডিবির একটি ৩ সদস্যের টিম যোগ দেয়। রাত আড়াইটার দিকে প্রায় ১০/১২ সদস্যের গোয়েন্দা দল নগরীর চট্টেশ্বরীর ওই বাসা ঘেরাও করে ফেলে।

বাসার মালিক শাহ আলম এহসানুল হক মিলনের বন্ধু। সেই সূত্রে তার বাসায় কয়েকদিন ধরে মিলন আত্মগোপনে ছিলেন বলে জানান চাঁদপুর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) মিজাজুর রহমান।

এদিকে, ওই বাসার মালিকের স্ত্রী সাইলা আলমের অভিযোগ, পুলিশ সাবেক এ শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীকে গ্রেফতারের সময় তার স্বামী শাহ আলমকেও আটক করে নিয়ে গেছে।

মমতাজ ছায়ানীড়ের ম্যানেজার শাহ আলম জানান, রাত আড়াইটা থেকে পুলিশ বাসার গেট খোলার জন্য বার বার বলে। প্রথমে গেট না খোলায় ভোররাত সাড়ে ৩টার পর পুলিশ গেট ভাঙার চেষ্টা করে। শেষে গেট খুলে দেয়া হয়। এরপর বাসায় ঢুকে এহসানুল হক মিলনকে গ্রেফতারের পর মিলন পুলিশের কাছে ৩০ মিনিট সময় চেয়ে নিয়ে গোসল করে নামাজ পড়েন। পরে ভোর সাড়ে ৪টার দিকে তাকে নিয়ে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে যায় পুলিশ।