চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক শেষে যা বললেন বঙ্গবীর

প্রকাশ: ২০১৮-১১-১৩ ১৪:১৮:৩১ || আপডেট: ২০১৮-১১-১৩ ১৪:১৮:৩১

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল এক সপ্তাহ পেছানোকে ‘সরকারের ভোট চুরির পরিকল্পনা’ বলে অভিযোগ করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী।

মঙ্গলবার দুপুরে মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে বেলা পৌনে ১২টা থেকে দেড় ঘন্টাব্যাপী এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

কাদের সিদ্দিকী বলেন,নির্বাচন কমিশন সরকারের ইচ্ছাতেই ভোট ১ সপ্তাহ পিছিয়েছে। যদি তারা স্বাধীন হতো তাহলে দাবি অনুযায়ী ১ মাস পিছাতো।

ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন, বিএনপির মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী।

উল্লেখ্য, ভোট পেছানো সংক্রান্ত বিভিন্ন জোটের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার নির্বাচনের তারিখের পুনঃতফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

পুনঃতফসিল অনুযায়ী, রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ২ ডিসেম্বর। ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে। আর ভোটগ্রহণ করা হবে ৩০ ডিসেম্বর।

এর আগে গত ৮ নভেম্বর জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন সিইসি। তফসিল অনুসারে, প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের সুযোগ ছিল ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ছিল ২২ নভেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর এবং ভোটগ্রহণ করার কথা ছিল ২৩ ডিসেম্বর।