চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

সংলাপ শেষ, কী হলো জানা যায়নি

প্রকাশ: ২০১৮-১১-০১ ২২:৫৮:৪২ || আপডেট: ২০১৮-১১-০১ ২২:৫৮:৪২

সংসদ নির্বাচনসহ চলমান জাতীয় বিভিন্ন ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সংলাপ শেষে গণভবন থেকে বের হচ্ছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতারা।

বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হওয়া সংলাপ প্রায় পৌনে চার ঘণ্টা পর শেষ হয় রাত পৌনে ১১টার দিকে।

সংলাপ শেষে গণভবন থেকে বের হন ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা। তবে এসময় তারা উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনও কথা বলেননি।

তবে সংলাপ কার পক্ষে কতটা ফলপ্রসূ হলো, উভয়পক্ষে কতটা সমঝোতা হলো তা এখনও জানা যায়নি।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার কিছু পরই একে একে গণভবনে পৌঁছায় ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ। ঐক্যফ্রন্ট প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। ঐক্যফ্রন্টের ২১ সদস্যের প্রতিনিধিদলে বিএনপির ৭ জন শীর্ষ নেতা ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাসহ ক্ষমতাসীন জোটের ২৩ নেতার সঙ্গে গণভবনে সংলাপে বসেন ২১ সদস্যের ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধিদলে বিএনপি নেতাদের মধ্যে ছিলেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনে সক্রিয় জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমীন, সাবেক দুই সংসদ সদস্য এস এম আকরাম ও সুলতান মো. মনসুর আহমেদ অংশ নেন।

এছাড়াও এই প্রতিনিধিদলে ছিলেন জেএসডির আ স ম আবদুর রব, তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, মোকাব্বির খান, জগলুল হায়দার আফ্রিক, আ ও ম শফিকউল্লাহ এবং নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না।

সংলাপে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২৩ সদস্যের প্রতিনিধিদলে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা ওবায়দুল কাদের, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, কাজী জাফর উল্যাহ, আবদুল মতিন খসরু, মো.আব্দুর রাজ্জাক, রমেশ চন্দ্র সেন, আনিসুল হক, মাহাবুব-উল আলম হানিফ, আবদুর রহমান, দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুস সোবহান গোলাপ, শ ম রেজাউল করিম, ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেনন, জাসদ নেতা হাসানুল হক ইনু, মইনুদ্দিন খান বাদল, সাম্যবাদী দলের দিলীপ বড়ুয়া।

উল্লেখ্য, সংসদ ভেঙে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একাদশ সংসদ নির্বাচনের দাবি তোলা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গত ২৮ অক্টোবর সংলাপের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি পাঠান। ৩০ অক্টোবর সংলাপের আহ্বান জানিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দেয়া চিঠির জবাব দেয় আওয়ামী লীগ। এরই ধারাবাহিকতায় এই সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।