চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

এ যুগের মীরজাফর ড. কামাল: মোহাম্মদ নাসিম

প্রকাশ: ২০১৮-১০-১৯ ২০:২১:৫৮ || আপডেট: ২০১৮-১০-১৯ ২০:২১:৫৮

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে এ যুগের মীরজাফর বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেছেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাকে (ড. কামাল) এমপি বানিয়েছিলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রীও হয়েছিলেন। অথচ সেই ড. কামাল এখন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। তিনি এ যুগের মীরজাফর।’

শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) নিজ নির্বাচনি এলাকা সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত ভবনসহ ৫টি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন শেষে উপজেলা পরিষদ আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘কোনও চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র করে জনগণকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। নির্বাচন ভণ্ডুল করার ক্ষমতাও কারও নেই। এ দেশের জনগণ শান্তি ও উন্নয়নের পক্ষে। তারা যেকোনও অশুভ শক্তির চক্রান্ত নস্যাৎ করে দেবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন ঘোষিত সময়েই নির্বাচন হবে এবং তা সংবিধান অনুযায়ী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই হবে। এর কোনও বিকল্প নেই।’

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ১৪ দল এবং মহাজোট বিজয়ী হলে, বার বার বিজয়ী হলেও বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাই হবেন প্রধানমন্ত্রী। এতে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু জ্বালাও-পোড়াওকারীদের দল নির্বাচিত হলে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী তা মির্জা ফখরুল বা ড. কামালরা জানেন না।’

সরকারের বিভিন্নমুখী উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে একদিকে মহাকাশ জয়ের যাত্রা শুরু হয়েছে। অন্যদিকে, তৃণমূলের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের কাজ করা হচ্ছে।’

স্থানীয় পর্যায়ের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘উন্নয়ন এবং ভালবাসা দিয়ে জনগণের কাছে ভোট চাইতে হবে। রাস্তা-ঘাট, স্কুল-কলেজ,মসজিদ-মাদ্রাসাসহ অবকাঠামোগত সব উন্নয়ন জনগণের কাছে তুলে ধরতে হবে। ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। গ্রামে গ্রামে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চাইতে হবে। নির্বাচনি মাঠে একা খেলে কোনও মজা নেই। প্রতিপক্ষকে পরাজিত করেই আওয়ামী লীগ ভোটে জিততে চায়, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠনে হ্যাটট্রিক করতে চায়।’

আওয়ামী লীগের সিনিয়র এই নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে না। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। দুনিয়ার অন্যান্য গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের মতো বাংলাদেশেও নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী, আর নির্বাচনকালীন সরকার প্রধান থাকবেন শেখ হাসিনা। নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। এর বাইরে যাওয়ার কোনও সুযোগ নেই।’

কাজীপুর উপজেলা পরিষদ আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শফিকুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন– সাবেক এমপি ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়, জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দীকা, কাজীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বকুল সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান।