চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

ভারী বৃষ্টি, চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের আশঙ্কা

প্রকাশ: ২০১৮-১০-১৪ ০০:০৪:২৪ || আপডেট: ২০১৮-১০-১৪ ০০:০৪:২৪

ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এটি বর্তমানে বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলে অবস্থান করছে। নিম্নচাপটি বাংলাদেশে অতিক্রমের সময় চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও অতি ভারী বৃষ্টি ও পাহাড় ধসের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ মিলি পারভিন বলেন, ‘গাঙ্গেয় পশ্চিম বঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলে অবস্থানরত নিম্নচাপের প্রভাবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪-৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিলিমিটারের বেশি) বৃষ্টিপাত হতে পারে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভূমিধ্বসের আশঙ্কা রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘চট্টগ্রামে শনিবার সকালের পর বৃষ্টিপাত অনেকটাই কম ছিলো। শনিবার দুপুর পর্যন্ত এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ১১ দশমিক ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে চট্টগ্রামে। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো ২২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।’

এদিকে, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান জানান, নগরের পাহাড়ে পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারী প্রায় ৭ হাজার মানুষকে সরিয়ে নিয়েছে জেলা প্রশাসন। গত শুক্রবার থেকে দুই দিনের অভিযানে এসব মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়। জেলা প্রশাসনের আশ্রয়কেন্দ্র এবং আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন এসব মানুষ।