চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হচ্ছে

প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৬ ১৪:২২:২৯ || আপডেট: ২০১৮-১০-০৬ ১৪:২২:২৯

বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নেয়া হচ্ছে।

হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে শনিবার দুপুরের পর যেকোনো সময় হাসপাতালে নেয়া হতে পারে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এ ব্যাপারে কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন পরিবর্তন ডটকমকে জানান, বিকেল ৩টার পর খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিএসএমএমইউতে নিয়ে যাওয়া হবে।

বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল্লাহ আল হারুন পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, দিনের দ্বিতীয় ভাগের যেকোনো সময়ে তাকে হাসপাতালে আনা হতে পারে।

এদিকে, বিএসএমএমইউ সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়ার জন্য দুইটি ভিআইপি কেবিন প্রস্তুত করা হচ্ছে।

যদিও এ বিষয়ে হাসপাতাল পরিচালকের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, আমরা যেকোনো ভিআইপি বা ভিভিআইপিদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে সব সময় প্রস্তুত থাকি।

জানতে চাইলে বিএনপির সহ স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য সকল প্রস্ততি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে হাসপাতালের ৫১১ ও ৫১২নং ভিভিআইপি কেবিন বরাদ্দ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি আছেন।

পুরাতন এই কারাগারে একমাত্র বন্দি হিসেবে খালেদা জিয়াকে প্রথমে জেল সুপারের পরিত্যক্ত কক্ষে রাখা হয়েছিল। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মহিলা ওয়ার্ডে।

বন্দি জীবনে খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বলে বিএনপির পক্ষ থেকে বারবার দাবি করার পর গত এপ্রিলের শুরুতে তাকে বিভিন্ন পরীক্ষা করাতে বিএসএমএমইউতে আনা হয়েছিল।

তবে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে ওই দিনই তাকে পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে ফেরত নেয়া হয়।

এরপর এপ্রিল ও মে মাসে একাধিকবার বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, কারাগারে খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

গত ৫ জুন বিএনপি নেত্রীর ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ হয়েছিল বলে তারা ধারণা করছেন। সে কারণে তিনি পড়ে গিয়েছিলেন বলে বিএনপির পক্ষ থেকে জানানো হয়।