চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

কঠিন সময় আসছে, অনেক খেলা হবে: শামীম ওসমান

প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৪ ১৯:৫০:১৪ || আপডেট: ২০১৮-১০-০৪ ১৯:৫০:১৪

আগামী ২৭ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জে ইতিহাসের বৃহৎ সমাবেশ করে বাংলাদেশকে জাগাতে চান ও দলের নেতার্মীদের উদ্দেশ্য সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেন, সামনে কঠিন সময় আসছে। অনেক খেলা হবে, আমাদেরকে প্রস্তুত থাকতে হবে। তবে ২০১৪ সালের মতো আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করার খেলা এই নারায়ণগঞ্জে খেলতে দেয়া হবে না। জনগণ যদি ক্ষেপে যায় তাহলে বাড়ির ইট একটাও থাকবে না। সামনে আমাদের লড়াই করতে হবে। আর এ লড়াই হবে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য লড়াই, বাংলাদেশকে বাঁচানোর লড়াই।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর ইসদাইর এলাকায় একটি কমিউিনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত দলীয় সভায় একথা জানান। ইসদাইর এলাকায় অবস্থিত একেএম সামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে এ বিশাল সমাবেশ করবেন শামীম ওসমান।

তিনি বলেন, ২৭ অক্টোবর শনিবার বাংলাদেশকে জাগাতে চাই। এদিন দুপুর তিনটায় সামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে নারায়ণগঞ্জের ইতিহাসের সর্ববৃহৎ সমাবেশ করতে চাই। সেই সমাবেশ হবে আগামীবার ক্ষমতায় আসার আগে বিজয় মিছিলের সমাবেশ। তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জকে দেখে অইদিন সারা বাংলাদেশ জেগে উঠবে। আওয়ামী লীগের কর্মীরা যদি একবার মাঠে নামে তাহলে ড. কামাল, ড. ইউনুসরা আর কূলাতে পারবে না। শামীম ওসমান নেতা কর্মীদের মনোবল আরো বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে বলেন, শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী আছেন, শেখ হাসিনাই প্রধানমন্ত্রী থাকবেন। বিন্দু পরিমান চিন্তার কোন কারন নাই। তাই আমাদেরকে জানান দিতে হবে আমরা দুর্বল না। এই জন্য আওয়ামীলীগের সাচ্চা নেতাকর্মীদের নিয়ে কাজ করতে চাই। প্রত্যেকটি এলাকায় বাড়ি বাড়ি পথসভা করার ইচ্ছা ব্যক্ত করে তিনি নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নিতে আহবান জানান।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়া, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, সাবেক পৌর প্রশাসক মতিন প্রধান, কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতিসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।