চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

আবারও স্মারকলিপির কর্মসূচি বিএনপির

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-৩০ ১৮:১০:০৩ || আপডেট: ২০১৮-০৯-৩০ ১৮:১০:০৩

আগামী জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মু্ক্তিসহ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশ থেকে মোট সাতটি দাবি জানিয়েছে বিএনপি।  এসব দাবিতে আগামী বুধবার সব জেলায় সমাবেশ এবং পরে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেয়ার কথা জানান মির্জা ফখরুল। পরদিন বিএনপির সমাবেশ হবে সব মহানগরে। সেদিন সমাবেশ শেষে স্মারকলিপি দেয়া হবে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে।

কর্মসূচি ঘোষণা করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ধাপে ধাপে আমরা এগিয়ে যাব। আন্দোলনের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি করব। আমাদের সকল দাবি আদায় করব।’

রবিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে এই দাবি জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। প্রায় এক বছর পর এই উদ্যানে এই জনসভাকে ঘিরে বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে ছিল ব্যাপক উৎসাহ। নগরীর নানা প্রান্ত থেকে তারা দুপুরের আগেই যোগ দেয় জনসভায়।

খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় কারাগারে বন্দী থাকলেও তাকে জনসভার প্রধান অতিথি করা হয়। আর সমাবেশের প্রধান বক্তা ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। সভাপতি ছিলেন মির্জা ফখরুল।

সমাবেশে যেসব দাবি জানানো হয় সেগুলো হলো তফসিল ঘোষণার আগে বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহার, তারেক রহমানসহ সব রাজনৈতিক দলের নেতাদের মামলা প্রত্যাহার, নতুন করে মামলা দেয়া যাবে না এবং কাউকে গ্রেপ্তার করা যাবে না, সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দেয়া, নির্বাচন পুনর্গঠন, ভোটে ম্যাজিস্ট্রেসি পাওয়ার নিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন, ভোট গ্রহণে ইভিএম ব্যবহার হবে না- সেটা নিশ্চিত করা, আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের কাজ করার সুযোগ দিতে হবে, কোনো রকম বিধিনিষেধ আরোপ করা যাবে না।

এসব দাবিতে আগামী বুধবার সব জেলায় সমাবেশ এবং পরে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেয়ার কথা জানান মির্জা ফখরুল।পরদিন বিএনপির সমাবেশ হবে সব মহানগরে। সেদিন সমাবেশ শেষে স্মারকলিপি দেয়া হবে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে।