চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

‘মাঠ দখলে রাখতে’ ১৪ দলের কর্মসূচি ঘোষণা

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২৯ ১৮:২১:২৮ || আপডেট: ২০১৮-০৯-২৯ ১৮:২১:২৮

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত মাঠ দখলে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। এ লক্ষ্যে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ১৪ দল। রাজশাহী, নাটোর ও খুলনায় বিভাগীয় সমাবেশের পর ঢাকায় মহাসমাবেশ করবে সরকার দলীয় এই জোট।

শনিবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে ১৪ দল আয়োজিত কর্মী সমাবেশে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। বিএনপির অব্যাহত ‘মিথ্যাচার’ ও ‘চক্রান্তের’ প্রতিবাদে এই সমাবেশের ডাক দেয় ১৪ দল।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, আগামী ৯ অক্টোবর রাজশাহী, ১০ অক্টোবর নাটোর ও ১৩ অক্টোবর খুলনায় বিভাগীয় সমাবেশ করবে ১৪ দল। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করে অক্টোবরে ঢাকায় মহাসমাবেশ করা হবে।

২০০৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করা বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দল আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবার সরব হচ্ছে। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে তাদের কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে। আগামীকাল রবিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। এছাড়া ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্য গঠনের প্রক্রিয়া চলছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে এই জোটের কর্মসূচিও শুরু হবে।

নাসিম বলেন, ‘ওরা (২০ দল) বলেছে অক্টোবর মাস থেকে মাঠে থাকবে। অক্টোবর মাস তোমাদের জীবনে আসবে না। আগামী ডিসেম্বর মাসে নির্বাচনের আগে আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে মাঠ গরম করবো। আমরা দেখিয়ে দেব।’

মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে কর্মী সমাবেশ সঞ্চালন করেন ঢাকা মহানগর ১৪ দলের সমন্বয়ক শাহে আলম মুরাদ।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাতীয় পার্টি (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, বাংলাদেশ জাসদ সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, জেপি মহাসচিব শেখ শহীদুল ইসলাম, তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাৎ হোসেন, বাংলাদেশ জাসদ সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, বাসদের আহ্বায়ক রেজাউর রশীদ খান প্রমুখ।