চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

পাকিস্তানের দালাল বিএনপিকে জনগণ আর চায় না: চট্টগ্রামে কাদের

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২৩ ১৪:১১:০৯ || আপডেট: ২০১৮-০৯-২৩ ২২:২৩:৪৫

চট্টগ্রামের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কর্ণফুলীতে বিএনপির কি অবস্থা আজ দেখে যান। কর্ণফুলী এখন নৌকার দুর্গ। কর্ণফুলী এখন তরুণ নেতা জাবেদের দুর্গ। শেখ হাসিনার নৌকার দুর্গে পরিণত। চট্টগ্রামের মানুষ বিএনপিকে আর চায় না। যারা পাকিস্তানের দালালি করে তাদেরকে চায় না।

রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা এসআর স্কয়ার প্রাঙ্গনে আওয়ামী লীগের আয়োজিত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় দক্ষিণ জেলা আওযামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ জামাল আহমেদ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ছাত্রছাত্রীদের সড়ক আন্দোলনে গুজব ছড়ালো। আওয়ামী লীগ অফিসে নাকি চার মেয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে, কেঁদে কেঁদে লাইভে এসে যে নায়িকা প্রচার করলো সেটাও গুজব বলে প্রমান হয়ে গেছে। সবাইকে এক হতে হবে, এসব গুজব প্রতিরোধ করতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ঐক্যবন্ধ থাকলে, আগামী নির্বাচনেও বিজয় নিশ্চিত। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নারীদের জন্য অনেক কিছু সুযোগ সৃষ্টি করেছে। নারী জাতি সবাই কি শেখ হাসিনাকে আগামীতে সম্মান দেবেন? উচ্চস্বরে সকলে হা বলে আওয়াজ দেন। বিশ্বে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রভাবশালী নেত্রী। আপনাদের আস্থা আছে কি আমাদের নেত্রীর উপর? পুনরায় সকলে উচ্চস্বরে হা বলে আওয়াজ দেন।

সেতুমন্ত্রী বলনে, আওয়ামী লীগ প্রাচীন দল। জনপ্রয়িতায় দলটি ৬৪ শতাংশ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬৬ শতাংশ জনপ্রিয়। এ দলকে বাদ দিয়ে যারা জাতীয় ঐক্যের স্বপ্ন দেখেছেন তারা বোকার স্বর্গে বসবাস করছেন। তথাকথিত জাতীয়তাবাদী দল বিএনপিকে নিয়ে কিসের ঐক্য? এদের ঐক্য সাম্প্রদায়িক। যারা যুদ্ধাপরাধীদরে বিচারে বিরোধীতা করেছেন তাদের ঐক্যে জনগণ নেই।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা,পঙ্গু ভাতা দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ গরিবের দল। বিএনপি কখনও গরিবের দল নয়, বিএনপি মানুষের দল নয়, ক্ষমতার দল, বিএনপি ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ফকরু সাহেব জাতিসংঘ তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীর সাথে বৈঠক করে জাতিসংঘের মহাসচিব এর সাথে দেখা করেছেন বলে প্রচার করল বিএনপি। অথচ জাতিসংঘের মহাসচিব তখন যুক্তরাজ্যেও ছিলেন না। জনগনকে বোকা বানিয়ে মিথ্যাচারের আশ্রয় নিলেন। বিএনপি ভুয়া দল। এ রকম প্রতারক দল কি ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হবে?

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্ত বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, চট্টগ্রাম-১৩ আসনের সংসদ সদস্য ভূমি প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব মোসলেম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব ফারুক চৌধুরী, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি সহ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে সড়কপথে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের উদ্দেশে এই নির্বাচনী প্রচারণা সফর শুরু হয়।