চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

বিকেলে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশের মুখোমুখি আফগানিস্তান

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২০ ১১:৪৩:২৬ || আপডেট: ২০১৮-০৯-২০ ১৮:৫৪:৫৪

এশিয়া কাপের ৬ষ্ঠ দিনে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) আরব আমিরাতের আবুধাবিতে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, গাজী টিভি ও মাছরাঙা।

গ্রুপে পর্বে উভয় দলের এটি দ্বিতীয় ম্যাচ। ইতোমধ্যে একটি করে জয় পেয়ে দুই দলই নিশ্চিত করেছে শেষ চারের খেলা। গ্রুপের শেষ ম্যাচের অপেক্ষা না করেই এসিসি শেষ চারের সূচি নির্ধারণ করায় নেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুবিধা আদায়ের ‘বালাই’ও। তবে এসিসিসির সমালোচিত এই পদ্ধতির বাইরে থেকেও লুকিয়ে আছে টাইগারদের ভালো করার প্রত্যয়। গ্রুপ রানার্সআপ হিসেবে পরের রাউন্ডে অংশ নিলেও আফগানদের বিপক্ষে জয় এনে দিতে পারে প্রেরণা।

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচের আগে ভক্তদের আগ্রহ এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে ঘিরেই। পাঁজরে চোট পেয়েছেন মুশফিক। ব্যথা নিয়েই খেলেছেন শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ। ওই ম্যাচে খেলেন ক্যারিয়ারসেরা (১৪৪) ইনিংস। তবে টাইগারদের সুপার ফোরে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে আজকের ম্যাচে মুশফিককে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। দুদিন আগে থেকে বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে এমনই গুঞ্জন। ভক্তরা তাই জানতে মরিয়া।

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচের চেয়েও কিছু ভক্তের কাছে মুশফিকের খেলা না খেলার গুরুত্ব যেন অনেক বেশি! গতকাল অবশ্য অনুশীলনে দেখা গেছে এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে। জানা গেছে, আফগান ম্যাচে মুশফিকের খেলার সম্ভাবনা ফিফটি-ফিফটি। চোটের কারণে ছিটকে গেছেন তামিম ইকবাল। তার অভাব পূরণ হওয়ার নয়!

জানা গেছে, তাতে লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নাজমুল হোসেন শান্তকে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। সাকিবের খেলা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে! বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের আঙুলে চোট রয়েছে। শেষমেশ যদি সাকিবও না খেলেন তা হলে ওয়ান ডাউনে দেখা যেতে পারে মুমিনুল হককে। এ ছাড়া পরখ করে দেখা হতে পারে আরিফুল হককেও। সে ক্ষেত্রে বাদ পড়তে পারেন প্রথম ম্যাচে বিবর্ণ মোসাদ্দেক হোসেন।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, আসলে ম্যাচ নিয়ে আমরা এভাবে চিন্তা করছি না। প্রত্যকটিই দেশের আন্তর্জাতিক ম্যাচ। সুতরাং আফগানিস্তানের সঙ্গে ম্যাচটিরও গুরুত্ব রয়েছে।

এই ম্যাচের আগে আফগানিস্তানও তাদের শক্তি ও সক্ষমতা দেখিয়েছে। শ্রীলঙ্কাকে তারা বিদায় করে দিয়েছে এবারের এশিয়া কাপ আসর থেকে। শুধু তাই নয়, সাকিবের নেতৃত্ব ভারতের দেরাদুনে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও টাইগাররা আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল। আত্মবিশ্বাসী আফগান দলের অন্যতম সদস্য রশিদ খান তো ঘোষণা দিয়েছেন এশিয়া কাপ তাদের চাই।

ওয়ানডেতে দু’দল মোট পাঁচবার মুখোমুখি হয়েছে। তাতে বাংলাদেশের তিন জয়ের বিপরীতে হার দু’টিতে। ওয়ানডেতে ২০১৬ (০১ অক্টোবর) সালে সবশেষ মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ-আফগানিস্তান। দুই বছর পর আজ এশিয়া কাপের ম্যাচে মাঠে নামছে দুদল।