চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

দুদকে যেতেই হবে আমীর খসরুকে

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৭ ১৪:২৩:০৩ || আপডেট: ২০১৮-০৯-১৭ ১৬:৩৪:২৯

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) হাইকোর্ট দেখালেও শেষতক সম্পদের হিসেবে দিতে দুদকে হাজির হতেই হবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে।

দুদকের নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে খসরুর রিট রোববার খারিজ করেছিলেন হাইকোর্ট। উচ্চ আদালতের ওই আদেশ স্থগিত করেনি আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতও।

ফলে আমীর খসরুকে দুদকে হাজির হতেই হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

আজ সোমবার আদালতে আমীর খসরুর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মওদুদ আহমদ।
আমীর খসরু মাহমুদকে দুদকে হাজির হওয়ার নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিট কার্য তালিকা থেকে গত ৫ সেপ্টেম্বর বাদ দেন হাইকোর্টের অপর একটি বেঞ্চ।

দুদকে হাজির হওয়ার নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত ৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন খসরু।

অবৈধ লেনদেন, মুদ্রা পাচার, অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আমীর খসরুকে গত ১৬ আগস্ট তলব করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলম স্বাক্ষরিত এক নোটিশে ২৮ আগস্ট বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যকে সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়।

উচ্চ আদালতে রিট মামলা বিচারাধীন থাকার কারণ দেখিয়ে আমীর খসরু মাহমুদ দুদকে হাজির হননি। তিনি আইনজীবীর মাধ্যমে সময় চেয়েছিলেন।

দুদকের চিঠিতে অভিযোগ আনা হয়, তিনি বেনামে পাঁচ তারকা হোটেল ব্যবসা, ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার এবং নিজ, স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের নামে শেয়ার ক্রয়সহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন।