চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮

জামায়াতের শাহজাহান-শামসুলসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জগঠন

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১২ ২০:৩৮:১৯ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৩ ১৫:০৮:০৮

জামায়াতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর রায়কে কেন্দ্র করে সাতকানিয়ায় ভাংচুর ও নাশকতার একটি মামলায় জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলামসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন আদালত।

যাদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হয়েছে তারা হলেন-জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলাম, জামায়াত নেতা আবু সালেক, মো. সিরাজুল ইসলাম, মো. মহিবুল্লাহ, মো. মহসিন, শেখ মো. শাহ আলম, মো. ইমরান হোসেন, মো. জাকির হোসেন, মো. ইলিয়াছ, ফিরোজ মাস্টার, জমির আহমদ, সানোয়ারুল হক, মো. বোরহান, জমিরুল ইসলাম, মুজিবুর রহমান, নুরু মোহাম্মদ, ডা. নোমান, আবু তৈয়ব প্রকাশ তালেব, মো. দারুল ইসলাম, মো. শহীদুল্লাহ, এখলাছুর রহমান, এয়ার মোহাম্মদ, মো. হামিদ ও মমতাজ উদ্দিন।

রোববার (১২ আগস্ট) চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার রুমির আদালত এ চার্জ গঠন করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের কোর্ট পরিদর্শক বিজন কুমার বড়ুয়া বলেন, সাতকানিয়া থানায় ২০১৩ সালে দায়ের হওয়া ভাংচুর ও নাশকতার একটি মামলায় সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলামসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার রুমির আদালত।

জানা যায়, এ মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলামের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১৪৩/৩৪১/৩০৭ ও ১০৯ ধারায় চার্জ গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়া বাকি ২৩ আসামির বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৩৪১/৩২৩/৩০৭ ও ৫০৬ ধারায় চার্জ গঠন করা হয়েছে।

বিজন কুমার বড়ুয়া বলেন, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর রায়কে কেন্দ্র করে সাতকানিয়ায় ভাংচুর ও নাশকতার মামলা হয় ২০১৩ সালের ফেব্রয়ারিতে। মামলা নম্বর জিআর ২৬/২০১৩। পরে এ মামলায় ২০১৪ সালের জুনে শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলামসহ ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয় সাতকানিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শামসুল আলম। পরবর্তীতে সাতকানিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শাহাজ উদ্দিন ২০১৬ সালের ১৫ নভেম্বর জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরী ও শামসুল ইসলামসহ ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে সম্পূরক চার্জশিট দেন।