চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

অটো রিক্সা ও অটো বাইক গাড়ীগুলো চট্টগ্রামসহ সারা বাংলাদেশে চালানোর উদ্যোগ

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-০৬ ১৮:১৫:১০ || আপডেট: ২০১৮-০৮-০৬ ১৮:১৫:১০

অটো রিক্সা ও অটো বাইক গাড়ীগুলো চট্টগ্রামসহ সারা বাংলাদেশে চলাচল করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ও অটো বাইক সার্ভিস লিমিটেড দেশে ৫০ লক্ষেরও অধিক রিক্সা গাড়ীর অভিভাবক হয়ে রাজপথে চালানোর উদ্যোগ গ্রহণ করে আজ ৬ আগস্ট দুপুর সাড়ে ১২ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এক সংবাদসম্মেলনে লিখিত বক্তব্য কোম্পানীর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর আবুল কালাম জানান।

তিনি লিখিত বক্তব্যে আরো জানান সরকারকে ১৫% ভ্যাট ও ট্যাক্স প্রদান এবং বছরে রিক্সার প্লেট বাবদ কর্পোরেশনকে ৪ হাজার টাকা দিয়ে দেশের যথাযথ আইন মেনে এ অটো রিক্সা চালানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এ ছাড়াও বছরে নবায়ন ফি এক হাজার টাকা প্রদান করা এবং সারা দেশ থেকে এনবিআরকে এক হাজার কোটি টাকা রাজস্ব প্রদান করে সরকারের লাইসেন্স প্রাপ্ত হয়ে ও সরকারের অনুমোদন পেয়ে ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ও বাইক চট্টগ্রামসহ সারাদেশে আগামীকাল ৭ আগস্ট মঙ্গলবার থেকে চলাচল করবে। তিনি লিখিত বক্তব্যে জানান ইতোপূর্বে বিএনপি ও জামাত পন্থী সংগঠনের লোকজন দেশকে অস্থিতিশীর করার লক্ষ্যে লাইসেন্সবিহীন, অপ্রাপ্ত বয়স্ক ড্রাইভার, অটো টেম্পো, সিএনজি, রেগুনাসহ ইত্যাদি নামে বেনামে যানবাহন রাস্তায় নামিয়ে যত্রছত্র গাড়ী বেপরোয়া চলাচল করে দুর্ঘটনা ঘটিয়ে অনেক মানুষ আহত ও নিহত করে। এ সব দোষ অটো রিক্সার ঘাড়ে চাপিয়ে দিচ্ছে এবং অপপ্রচার চালাচ্ছে। তিনি আরো জানান প্যাডল চালিত রিক্সা চালানো অনেক কষ্টসাধ্য।

আধুনিক যুগে একজন বয়োবৃদ্ধ মানুষ প্যাডল রিক্সা চালক যখন ২০ বছরের একজন যুবককে প্যাডল রিক্সা চালিয়ে হাঁপিয়ে রিক্সা টেনে গন্তব্য স্থানে পৌঁছে দেয় তখন তা বর্বরতাকে হার মানায়। আর সারা দিন ঐ রিক্সা চালিয়ে ১০০/ ১৫০ টাকা নিয়ে ঘরে ফিরে। এ রিক্সার মাধ্যমে তার দুবেলা ভাত জুটে না। তারই নিরিখে ব্যাটারী চালিত রিক্সা চালিয়ে তারা অনায়সে তাদের অন্নের সংস্থান করতে পারছে আবার অন্যদিকে তা থেকে তাদের সঞ্চয়ও হচ্ছে। আজ ব্যাটারী চালিত রিক্সা মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে সক্ষম হয়েছে বলেই আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেটি বাস্তবায়নে এগিয়ে এসেছে।

বাংলাদেশ ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ও অটো বাইক সার্ভিস লিমিটেড এবং বাংলাদেশ আওয়ামী ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ও অটো বাইক মালিক ফেডারেশন (চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি) নিয়ন্ত্রণাধীন যৌথ প্রচেষ্টায় চট্টগ্রামের ৪১ ওয়ার্ডে ৮ টি জোনে প্রত্যেক অলি গলিতে ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা ও অটো বাইক চলাচল করবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট
মহিউদ্দিন, সালামত আলী, ফরিদ আহমদ, মনিরুল ইসলাম, মো. এরশাদ, মো. রফিক, মো. আবু আলম সিদ্দিকী, মো. জসিম প্রমুখ।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি