চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

সীতাকুণ্ডে সাগরে নিখোঁজ তিন পর্যটেকর মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৭ ২১:৪১:১৮ || আপডেট: ২০১৮-০৭-০৭ ২১:৫১:৩৩

সীতাকুণ্ডের বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে সাগরে গোসল করতে নামার পর নিখোঁজ তিন পর্যটেকর মরেদহ উদ্ধার করা হয়েছে।তারা হলেন, নগরের কোতোয়ালি থানার ঝাউতলা এলাকার কুদ্দুসের পুত্র সাইফুল ইসলাম (২৫), চাঁদপুর জেলার কচুয়া থানার পাশা এলাকার তাজুল ইসলামের পুত্র আলাউদ্দিন (২৬) ও একই জেলার শাহরাস্তি এলাকার শাহজাহানের পুত্র মো. ইয়াছিন (১৮)। তার মধ্যে সাইফুল ইসলাম ও ইয়াছিন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পরিছন্নকর্মী। তারা তিনজনই নগরীর জামালখান ২১ নং ওয়ার্ডে বসবাস করেন।

শনিবার বেলা ১২টার দিকে সাগর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে যৌথ উদ্ধারকারী দল। এরআগে শুক্রবার বিকেলে তারা সাগরে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন।

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিস সহকারী পরিচালক কামাল উদ্দিন ভূইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নগরের মোমিন রোড জামালখান এলাকা থেকে পরিবারসহ ২৩ সদস্যর একটি পর্যটক দল বেলা আড়াইটার সময় সীতাকুণ্ডের বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে আসে। এসময় তারা সাগর পাড়ে খাওয়া শেষে ঘুরাফেরা করেন। বিকালে বেড়ানোর এক পর্যায়ে সাইফুল ইসলাম, আলাউদ্দিন ও ইয়াছিন উত্তাল সমুদ্রে গোসল করতে নামেন। এসময় ভাটার টানে তিনজনই নিখোঁজ হয়ে যান। এ ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন সাগরে ইঞ্জিন চালিত বোট নিয়ে একঘণ্টা ধরে নিখোঁজ তিনজনকে উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন। এর পরে পর্যটক নিখোঁজের খবর পেয়ে চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিস ও সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস’লে পৌঁছে উদ্ধার কাজে অংশ নেয়। উদ্ধার কাজে নৌবাহিনী ও কোস্টগার্ড এর ডুবুরি দলও রাতে যোগ দেয়। সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও পুলিশ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা বিকাল হতে রাত পর্যন্ত ঘটনাস’লে অবস্থান করেন।

উল্লেখ্য, গত ২২ জুন ঢাকার নারায়ণগঞ্জ এলাকা থেকে বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে এসে সাগরে গোসল করতে নেমে নয় পর্যটক সাগরে নিখোঁজ হয়ে যায়। এদের মধ্যে সাতজনকে তাৎক্ষণিক উদ্ধার করা সম্ভব হলেও নিখোঁজের ২৫ ঘণ্টা পর দুই পর্যটকের লাশ উদ্ধার করে ডুবুরি দল।