চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আক্রমণাত্মক বেলজিয়ামের সামনে ছন্দময় ব্রাজিল

প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৬ ১২:৫৫:০২ || আপডেট: ২০১৮-০৭-০৭ ১৭:০৩:৪৫

রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ মুখোমুখি হবে ব্রাজিল-বেলজিয়াম। লড়াইটা শুধু দুই দলের বলা যায় না, বরং সমানে সমান বলা যায়। কারণ র‌্যাংকিংয়ে দুই নম্বর দল ব্রাজিল আর তার ঠিক পেছনে তিন নম্বরেই আছে বেলজিয়াম। হেক্সার মিশন পূরণ করতে বিশ্ব মঞ্চে এখন পেলে রোনাল্ডোদের দেশের ফুটবলাররা। অন্যদিকে আবার বেলজিয়ামও একটু ছাড় দিতে রাজি নয়। রাশিয়ার কাজান অ্যারেনায় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত বারোটায়।

কোয়ার্টার ফাইনালের এই ম্যাচটি দুই দলের জন্যই ফাইনাল। যারা জিতবে তাদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে। পাশাপাশি শিরোপা জয়ের পথটাও হয়ে যাবে মসৃণ। ২০০২ সালে নিজেদের পঞ্চম বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে ব্রাজিল। এরপর আরো তিনটি আসরে অংশগ্রহণ করলেও শিরোপার স্বপ্ন আর পূরণ হয়নি তাদের। এবার ষষ্ঠবার বিশ্বসেরা হওয়ার অনেকটাই কাছে ব্রাজিল। আজ বেলজিয়ামের প্রাচীর পেরুতে পারলেই একধাপ এগিয়ে যাবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

অপরদিকে বিশ্বকাপে এর আগে দুইবার কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে বেলজিয়াম। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপেও শেষ আটে খেলেছে তারা। কিন্তু বিশ্বকাপে তাদের সেরা সাফল্য সেমিফাইনাল। ১৯৮৬ সালে ফুটবলের সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্টের সেমি-ফাইনালে পৌঁছেছিল ইউরোপের দেশটি। কিন্তু ঐ আসরের চ্যাম্পিয়ন দিয়েগো মারাদোনার আর্জেন্টিনার কাছে হেরে বিদায় নিতে হয় তাদের। এবার আরো একটি কঠিন পরীক্ষার সামনে ইউরোপের দেশটি। আজ বিশ্বসেরা দল ব্রাজিলকে কোন মতে ঠেকাতে পারলেই নিজেদের স্বপ্ন জয়ের পথে এগিয়ে যাবে বেলজিয়ামও।

বেলজিয়ামের ভরসা ইডেন হ্যাজার্ড, লুকাকু, ডি ব্রুইনরা। গোলবার থেকে আক্রমণভাগ, সব জায়গাতেই দু’দলে প্রতিভার ছড়াছড়ি। দু’দলই গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে উঠে। দ্বিতীয় রাউন্ডে মেক্সিকোকে ২-০ গোলে সহজেই হারিয়েছে ব্রাজিল। সেলেকাওদের দলটি পুরোপুরি ভারসাম্যপূর্ণ। সবচেয়ে ভালো দিক পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের রক্ষণভাগ।

ব্রাজিলের রক্ষণ ভেঙে মাত্র একবারই বল জালে ঢুকেছে সুইজারল্যান্ড ম্যাচে। বাকি তিন ম্যাচে দুর্ভেদ্য ছিল ফ্যাগনার-সিলভা-মিরান্দাদের গড়া দেয়াল। পাশাপাশি উইলিয়ান, কুতিনহো, পাওলিনহো আর ফার্নান্দিনহোদের নিয়ে দুর্দান্ত মাঝমাঠ। আর আক্রমণে তো নেইমার রয়েছেনই।

বিশ্বসেরা দল বলেই ব্রাজিলের বিপক্ষে শেষ চারে ওঠার লড়াইটি উপভোগ করতে চায় বেলজিয়াম। ‘আমরা প্রথম মিনিট থেকে খেলা উপভোগ করতে চাই। যখন আপনি ব্রাজিলের মুখোমুখি হবেন, মনে রাখতে হবে যে তারা প্রতিযোগিতার সেরা একটি দল’, হাইভোল্টেজ ম্যাচে অবশ্য ব্রাজিলকেই ফেভারিট মানছেন বেলজিয়াম কোচ রবার্তো মার্টিনেজ। ম্যাচটাকে ‘স্বপ্নের ম্যাচ’ হিসেবে দেখছেন তিনি। ‘এই ম্যাচ আমাদের কাছে

বিশেষ কিছু। আমাদের ছেলেদের জন্য এটা স্বপ্নের ম্যাচ। স্বাভাবিকভাবেই আমরা জিততে চাইব। ব্রাজিলের মতো দলের বিপক্ষে খেলতে হলে আপনাকে আক্রমণে যেতে হবে। আবার ১১ জনকে নিয়েই রক্ষণে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। আমাদের রক্ষণ সামলাতে হবে। এরপর বলের দখল যখন পাওয়া যাবে, তখন ওদের ভোগাতে হবে। ছেলেরা সেটি করতে প্রস্তুত।’

যতই আক্রমণে যেতে চাক না কেন, বেলজিয়ামকে সেটি করতে হবে এরইমধ্যে আসরের সেরা রক্ষণজুটি সিলভা-মিরান্দাদের ফাঁকি দিয়ে। যেটি সহজ হবে না বলে মনে করেন ফ্রান্সের সাবেক ডিফেন্ডার উইলিয়াম গালাস। তার কথায়, ‘একজন সাবেক ডিফেন্ডার হিসেবে বলছি, সিলভা ও মিরান্দার খেলা সত্যিই উপভোগ্য। ওদের জুটিটাই আসরের সেরা সেন্টার ব্যাক জুটি।’ সবমিলিয়ে ব্রাজিল-বেলজিয়াম ম্যাচ হতে যাচ্ছে রাশিয়া বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা ম্যাচ। সবকিছু মিলিয়ে আজ চলতি আসরের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচই দেখতে পাবে গোটা ফুটবল দুনিয়া।