চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮

‘ইনজেকশন অর্ধেক পুশ করতেই দেখি মেয়ে ছটফট করছে’

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-৩০ ১৮:২৭:৩২ || আপডেট: ২০১৮-০৭-০১ ১২:৫৩:১৭

চট্টগ্রামে ম্যাক্স নামে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা। এরই মধ্যে সিভিল সার্জনকে প্রধান করে গঠন করা হয়েছে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) রাতে দৈনিক সমকাল পত্রিকার চট্টগ্রাম ব্যুরোর নিজস্ব প্রতিবেদক রুবেল খানের তিন বছর বয়সী মেয়ে রাইফাকে ঠাণ্ডাজনিত কারণে ম্যাক্স হাসাপতালে ভর্তি করা হয়।

রাইফার পরিবার জানায়, ওই সময় হাসপাতালে শিশু বিশেষজ্ঞ কোনো চিকিৎসক না থাকায় ডা. বিধান বড়ুয়া নামের একজনকে ডেকে আনা হয়। তিনি শিশুটিকে না দেখে ব্যবস্থাপত্র তৈরি করে চলে যান। সে অনুযায়ী চিকিৎসা দেয়া হয়। তবে শিশুটি আরো অসুস্থ হয়ে শুক্রবার (২৯ জুন) রাত ১২টার দিকে মারা যায়।

পরে রাতেই তাৎক্ষনিকভাবে ট্টগ্রামের সাংবাদিক নেতারা একত্রিত হয়ে ম্যাক্স হাসপাতালে অভিযুক্ত ডাক্তারসহ ৩ জনকে থানায় সোপর্দ করে।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম জানান, ম্যাক্স হাসপাতালে শিশু মৃত্যুর ঘটনায় রাতেই এক চিকিৎসকসহ ৩ জনকে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে সাংবাদিক ও চিকিৎসক নেতাদের আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে একটি তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। কমিটিতে সিভিল সার্জন, সাংবাদিক ও পুলিশের প্রতিনিধি থাকবেন। তদন্ত প্রতিবেদনে চিকিৎসায় অবহেলা প্রমাণিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, সাংবাদিক কন্যার মৃত্যুর ঘটনার বিস্তারিত জানতে ম্যাক্স হাসপাতালে এসেছি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

নিহত শিশুর বাবা সাংবাদিক রুবেল খান বলেন, ‘হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এমন একটা এন্টিবায়োটিক পুশ করছে, যেটা আমার মেয়ে সহ্য করতে পারেনি। অর্ধেক পুশ হওয়ার পর দেখি মেয়েটি ছটফট করছে।’

উল্লেখ্য, এর আগে চট্টগ্রাম মহানগরীর বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুসহ একাধিক ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হলেও কোনোটিই আলোর মুখ দেখেনি।