চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রামে অনিক হত্যা: কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার ২ আসামি রিমান্ডে

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২৭ ১৯:১৫:২২ || আপডেট: ২০১৮-০৬-২৮ ১২:২৬:১৪

চট্টগ্রামে চট্টেশ্বরী রোড এলাকায় অনিক হত্যা মামলায় কলকাতা থেকে গ্রেপ্তার দুই আসামিকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

আজ বুধবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল ইমরান খান দুই আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আসামিরা হলেন- অনিক হত্যামামলার প্রধান আসামি মহিউদ্দিন তুষার (৩০) এবং এখলাছুর রহমান (২২)। এই দুই আসামিকে কলকাতা পুলিশের সহায়তায় কলকাতার ফ্রি স্কুল স্ট্রিট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার তাদের বেনাপোল স্থলবন্দরের মাধ্যমে চট্টগ্রামে ফিরিয়ে আনা হয়।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী দুই আসামির রিমান্ড মঞ্জুরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অনিক হত্যার প্রধান আসামি তুষার ও এখলাছকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

পুলিশ জানায়, গত ১৭ জুন রাতে চট্টেশ্বরী এলাকায় গাড়ির হর্ন বাজানোর মতো তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবু জাফর অনিককে (২৬) প্রকাশ্যে গুলি করে ও ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। মহিউদ্দিন তুষারের নেতৃত্বে ১০-১২টি মোটরসাইকেল যোগে এসে দুর্বৃত্তরা অনিককে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এরপর মূল আসামি তুষারকে গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপরতা শুরু করলে তুষার এক সহযোগীসহ কলকাতায় পালিয়ে যায়। কলকাতায় পালিয়ে যাওয়ার বিষয় চট্টগ্রাম নগর পুলিশ জানতে পেরে কলকাতা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে গত শুক্রবার রাতে কলকাতার ফ্রি স্কুল স্ট্রিট এলাকা থেকে তুষার ও তার সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশ। সোমবার বেনাপোলে দুই আসামিকে বাংলাদেশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। এরপর কুমিল্লায় অভিযান চালিয়ে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

অনিক হত্যাকাণ্ডে নগরীর চকবাজার থানায় তুষারকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলার আসামিরা হলেন মহিউদ্দিন তুষার (৩০), মিন্টু (৩২), ইমরান শাওন (২৬), ইমন (১৬), শোভন (২৪), রকি (২২), অপরাজিত (২২), অভি (২১), বাচা (২২), এখলাছ (২২), দুর্জয় (২১) এবং অজয় (২১)।

অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।