চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা, চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের আশঙ্কা

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২৪ ১২:০৬:৪১ || আপডেট: ২০১৮-০৬-২৪ ১৮:৩৯:১৮

মৌসুমী বায়ু সক্রিয় হওয়ায় চট্টগ্রামসহ দেশের পাঁচ বিভাগে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। একই সঙ্গে অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রামে পাহাড় ধস হতে পরে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।

রোববার সকালে ভারী বর্ষণের সতর্কবাণীতে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর কারণে রোববার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, সিলেট ও চট্রগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতিভারী (৮৯ মিলিমিটারের বেশি) বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ খোন্দকার হাফিজুর রহমান জানান, অতিভারী বর্ষণের কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ী এলাকার কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।

রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী বিভাগ ছাড়া দেশের সব বিভাগেই বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। এখনও দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও রাজশাহীতে। শনিবার সেখানে তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের অন্যান্য অঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে চলা তাপপ্রবাহ প্রশমিত হলেও রাজশাহীতে এখনও তা অব্যাহত আছে।

আজ (রোববার) সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা এক থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামের স্বন্দ্বীপে ১৮৫ মিলিমিটার। এ সময়ে ঢাকার বৃষ্টি হয়েছে ৬২ মিলিমিটার। বৃষ্টির কারণে ঢাকার তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি থেকে নেমে ৩১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে এসেছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ বিহার থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ হয়ে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের উপর সক্রিয় ও অন্যত্র মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি থেকে প্রবল অবস্থায় বিরাজ করছে।