চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

রাউজানে যাত্রীবাহী বাসখাদে, তিন মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২২ ২২:২২:২২ || আপডেট: ২০১৮-০৬-২৩ ০৯:৫৬:২৮

চট্টগ্রামের রাউজানে যাত্রীবাহী বাসখাদে পড়েছে। এই ঘটনায় তিন মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাঙামাটি ছেড়ে আসা চট্টগ্রামমুখী যাত্রীবাহী বাসটি রাউজান পৌরসভার ঢালারমুখ ফরেস্ট অফিস ও পিংক সিটির সামনে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুকুরে পড়ে যায়। দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন আটকে পড়াদের উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। পরে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ যোগ দেয়।

জানা যায়, চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের রাউজানে যাত্রীবাহী একটি বাস পুুকুরে পড়ে ডুবে গেছে। এতে বাসটির ভেতরে থাকা যাত্রীরা আটকা পড়েছেন। বাসের ভেতর থেকে এ পর্যন্ত ৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার কাজ পরিচালনা করছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও পুলিশ। বহু হতাহতের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ জানান, বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুকুরে পড়ে যাবার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গেছে। বাসের ভেতর থেকে তারা ৫ জনকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরো বলেন, বাসটি যেভাবে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে তাতে বহু হতাহত হতে পারে। আহত ৭ জনকে উদ্ধার করে দ্রুত চিকিৎসার জন্য পাঠনো হয়েছে। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাৎক্ষণিকভাবে আহত ও নিহতদের কারও নাম পরিচয় জানা যায়নি।

রাউজান পৌর মেয়র প্যানেলের সদস্য জমির উদ্দিন বলেন, চট্টগ্রামমুখী বাসটি রাউজান পৌরসভার ঢালারমুখ ফরেস্ট অফিস ও পিংক সিটির সামনে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুুকুরে পড়ে যায়। রাস্তার পাশের কয়েকটি গাছের সঙ্গে বাসটির ধাক্কা লেগে গাছ ভেঙ্গে বাসটি পানির ভেতরে পড়ে গেছে।

রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেপায়েত উল্লাহ বলেন, বাসের ভেতরে থেকে অনেকে নিজেরাই বের হয়ে এসেছেন। আরো যাত্রী ভেতরে আটকা পড়েছে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আমরা তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করছি। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করেছেন তিনি।