চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

১০৯ কর্মচারী নিয়োগ চমেক হাসপাতালে

প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৬ ১৩:০২:৫৭ || আপডেট: ২০১৮-০৫-২৬ ১৫:১১:৩৮

সিটিজি টাইম্‌স প্রতিবেদক 

জনবল সংকট নিরসন ও স্পেশাল অায়া-ওয়ার্ডবয়দের ছাটাই করে ১০৯ জন অাউটসোর্সিং বেসরকারি কর্মচারী নিয়োগ দিচ্ছে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ইতোমধ্যে নতুন নিয়োগের অনুমতি চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চাহিদাপত্র পাঠিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এর মধ্য দিয়ে পহেলা জুলাই থেকে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়া হচ্ছে স্পেশাল অায়া-ওয়ার্ডবয়দের। যাদের বিরুদ্ধে রোগী হয়রানি, বাচ্চা চুরিসহ বিভিন্ন গুরুতর অভিযোগ রয়েছে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, হাসপাতালের স্থায়ী কর্মকর্তা কর্মচারীর অর্জন স্লান করছে এসব অবৈতনিক কর্মচারী। বেতন দেয়া হয় না বলে নির্দিষ্ট টাকা নেয়ার নিয়ম করে দিলেও তারা এর তোয়াক্কা করে না। দীর্ঘদিন কাজের সুবাধে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এসব স্পেশাল অায়া-ওয়ার্ডবয় হাসপাতালে দুর্নীতির উৎসব চালাচ্ছে।

তাই এদেরকে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়ার সিদ্ধান্ত ইতোমধ্যে নেয়া হয়েছে। এব্যাপারে পরিচালক স্বাক্ষরিত একটি চিটি সংশ্লিষ্টদের দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. অাখতারুল ইসলাম জানান, পহেলা জুলাই থেকে কোনো স্পেশাল অায়া-ওয়ার্ডবয় হাসপাতালে থাকছে না।

“নতুন জনবল নিয়োগের জন্য ইতোমধ্যে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। অনুমতি পাওয়া গেলে টেন্ডার অাহবান করা হবে। জুন মাসের মধ্যে এসব নিয়োগ শেষ করার টার্গেট রয়েছে।”

“তবে যেভাবে হোক স্পেশাল অায়া-ওয়ার্ডবয়দের বের দেয়া হবে। কারণ তাদের বিরুদ্ধে প্রতিদিন অহরহ অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। যা কারণে ক্ষুন্ন হচ্ছে চিকিৎসা সেবার সুনাম” যোগ করেন উপ পরিচালক।

চমেক হাসপাতাল এই অঞ্চলের গরীব-অসহায় জনগোষ্ঠীর চিকিৎসার শেষ অাশ্রয়। এখানকার ৯০% শতাংশ রোগীই অসহায়। প্রতিদিন ২-৩ হাজার রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন। বহির্বিভাগে চিকিৎসা নেন শত শত রোগী।

সুযোগ সুবিধার চেয়ে রোগী বেশি বিধায় এই হাসপাতালের সেবার মান নিয়ে রোগীদের অভিযোগের শেষ নেই। তবুও কর্তৃপক্ষ এসব সংকট কাটিয়ে তুলতে বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিচ্ছি।

উপ-পরিচালক ডা. অাখতারুল ইসলাম বলেন, “অামরা ইতোমধ্যে বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছি। অারো কিছু প্রক্রিয়াধীন। সীমাবদ্ধতা সত্বেও চেষ্টা করছি রোগীদের ভালো সেবা দিতে।”