চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮

মিরসরাইয়ে সিএনজি-ড্রাম ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১৩ ১৩:২২:৩০ || আপডেট: ২০১৮-০৪-১৪ ১০:৫১:৩৫

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

মিরসরাইয়ে বালুভর্তি ড্রাম ট্রাক অটোরিকশা সংঘর্ষ মা-বাবার সাথে বেড়াতে যাওয়ার পথে লাশ হলেন দুই ভাই  মৃত্যুর সাথে লড়ছেন মা-বাবাও

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বালুভর্তি ড্রাম ট্রাকের সাথে সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে দুই ভাই নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়ে সংকটাপন্ন অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন তাদের বাবা-মা ও জেঠি। গতকাল শুক্রবার দুপুরে উপজেলার করেরহাট খাগড়াছড়ি সড়কের চিনকীর আস্তানা এলাকায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, উপজেলার কাটাছড়া ইউনিয়নের বাড়িয়াখালী গ্রামের নজরুল ইসলাম মতিনের বড় ছেলে সানজিদুল ইসলাম ঈষাণ (১০) ও ছোট ছেলে মিনহাজুল ইসলাম জিসান (৭)। তাদের মধ্যে ঈষাণ স্থানীয় বামনসুন্দর আইডিয়াল স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী আর জিসান প্রথম শ্রেণির। প্রত্যক্ষদর্শী, স্বজন ও পুলিশ জানায়, কাটাছড়া ইউনিয়নের নজরুল ইসলাম মতিন নিজের দুই সন্তান ঈষাণ, জিসান, স্ত্রী মুক্তা আক্তার ও বড় ভাইয়ের স্ত্রী সুরমা বেগমকে নিয়ে উপজেলার হিঙ্গুলী ইউনিয়নের মিজান চেয়ারম্যানের বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। এসময় চিনকির হাট এলাকায় বালুভর্তি একটি ড্রাম ট্রাক তাদের বহনকারী অটোরিকশাকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে নিহত হয় তাঁর বড় ছেলে ঈষাণ। আহত হন মতিনসহ অন্যরা। আহতদের প্রথমে স্থানীয় বারইয়ারহাট কমফোর্ট হাসপাতাল ও পরে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান সাত বছর বয়সি জিসান। নিহতদের বাবা মতিন, মা মুক্তা আক্তার ও জেঠি সুরমা বেগম সংকটাপন্ন অবস্থায় চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

কমফোর্ট হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের পরিচালক নিজাম উদ্দিন জানান, দুর্ঘটনাস্থলে মারা যায় ঈষাণ। পরে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায় তার ভাই জিসান। তাদের বাবা, মা ও জেঠি বর্তমানে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের অবস্থাও সংকটাপন্ন।

করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শহীদ উল্লাহ বলেন, বারইয়ারইয়ারহাট-করেরহাট সড়কে ড্রামট্রাকগুলো বেপরোয়া গতিতে চলাচল করার কারণে এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। দ্রুতএই সড়কে বালু বহনকারী এই ঘাতক ট্রাকগুলো বন্ধের দাবী জানাচ্ছি।

জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিপুল দেবনাথ জানান, মতিন পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অটোরিকসায় করে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। পথে উপজেলার চিনকীর হাট এলাকায় বালু ভর্তি ট্রাক অটোরিকসাকে ধাক্কা দিলে ট্রাক ও অটোরিকসা দুইটিই সড়কের পাশে জমিতে পড়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলে একভাই ও হাসপাতালে আরেক ভাই মারা যায় এবং তাদের বাবা, মাসহ ৩ জন আহত হয়। গাড়ি দুইটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।