চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮

পূর্ণাঙ্গ ডেন্টাল কলেজে হচ্ছে চমেকের ডেন্টাল ইউনিট

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১০ ১১:৫২:৫৫ || আপডেট: ২০১৮-০৪-১০ ১৫:১০:৪৩

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের (চমেক) ডেন্টাল ইউনিটকে পূর্ণাঙ্গ ডেন্টাল কলেজে রূপান্তরের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শনে আসছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের একটি প্রতিনিধি দল।রূপান্তরের পর চমেক ডেন্টাল ইউনিটের পরিবর্তিত নাম হবে চট্টগ্রাম ডেন্টাল কলেজ। যেটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মতো পূর্ণাঙ্গ একটি কলেজ হিসেবে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম–সচিব ও পরিদর্শন কমিটির আহবায়ক ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের স্বা রে ৮ এপ্রিল (রোববার) এ চিঠি ইস্যু করা হয়। চিঠি পাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন চমেক অধ্য প্রফেসর ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।

১২ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) সকালে প্রতিনিধি দলটি চমেক ক্যাম্পাসে ডেন্টাল কলেজের জন্য প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শন করবেন। ৬ সদস্যের এ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিবেন মন্ত্রণালয়ের চিকিৎসা শিক্ষা অধিশাখার যুগ্ম–সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। তিনি পরিদর্শন কমিটির আহ্বায়ক।

এছাড়াও সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবুল কাশেম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (ডেন্টাল), মন্ত্রণালয়ের চিকিৎসা শিক্ষা অধিশাখার (২) উপ–সচিব ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের উপ–পরিচালক (ডেন্টাল) প্রতিনিধি দলে রয়েছেন। এর বাইরে চমেক অধ্য প্রফেসর ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, চমেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন ও চমেক ডেন্টাল ইউনিটের প্রধান ডা. আনোয়ার পারভেজ প্রতিনিধি দলের সাথে থাকবেন। প্রতিনিধি দলের প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শন সংক্রান্ত মন্ত্রণালয়ের এক চিঠির সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

চমেক ও চমেক হাসপাতাল প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে পূর্ণাঙ্গ ডেন্টাল কলেজের জন্য চমেক ক্যাম্পাসের গোয়াছি বাগান এলাকায় স্থান প্রস্তাব করা হয়েছে। ওই এলাকায় বর্তমানে স্টাফ কোয়ার্টার হিসেবে ৬টি ভবন রয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশ ভবনই কয়েক বছর আগে থেকেই পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

ওই এলাকার ২/৩ একর জায়গা জুড়ে পূর্ণাঙ্গ ডেন্টাল কলেজ ক্যাম্পাস গড়ে তোলার প্রস্তাবনা দেয়া হয়েছে জানিয়ে চমেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন বলেন, পরিত্যক্ত ভবন ও অবৈধ ঘরগুলো ভেঙে ওখানে ডেন্টাল কলেজ ক্যাম্পাস গড়ে তোলার জন্য আমরা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাবনা দিয়েছি।

এ নিয়ে মন্ত্রণালয়ের কয়েক দফা বৈঠকে আলাপও হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শনে মন্ত্রণালয় প্রতিনিধি দল পাঠানোর সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। এবং প্রতিনিধি দলটি স্থান পরিদর্শনে আসছে।