চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮

মেয়র নাছিরের কাছে দাওয়াত নিয়ে গেলেন সিডিএ চেয়ারম্যান

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-০৮ ১৭:১১:১১ || আপডেট: ২০১৮-০৪-০৮ ২১:১৭:৫১

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) সঙ্গে সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে দাওয়াত দিতে নগর ভবনে গেছেন সিডিএ চেয়ারম্যান আব্দুচ ছালাম।

সোমবার (৯ মে) সিডিএতে ‘চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃখনন, সম্প্রসারণ, সংস্কার ও উন্নয়ন’ শীর্ষক মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে এই সমঝোতা ম্মারক স্বাক্ষরিত হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ নিয়ে রোববার বেলা ১২ টার দিকে সিডিএ চেয়ারম্যান নগর ভবনে পৌঁছলে মেয়র তাকে হাসিমুখে স্বাগত জানান। এসময় তারা দুইজন একান্তে কিছুক্ষণ কথাবার্তা বলেন।

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, শনিবার রাত ১২টার দিকে মেয়র নাছিরকে ফোন দেন সিডিএ চেয়ারম্যান আব্দুচ ছালাম। ফোনে তিনি রোববার দেখা করতে আসবেন বলে জানান মেয়রকে।

এ প্রসঙ্গে মেয়র বলেন, তিনি জলাবদ্ধতা প্রকল্পের সমঝোতা স্মারক সইয়ের দাওয়াত নিয়ে এসেছেন। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি ওই অনুষ্ঠানে যাব।

মেয়র বলেন, নগরীর সব সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান সিটি করপোরেশনের সঙ্গে যত বেশি সমন্বয় করবে উন্নয়ন প্রকল্পগুলো ততই টেকসই হবে, জনদুর্ভোগ লাঘব হবে, পরিকল্পিত নগরী গড়ে উঠবে।

সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেন, ‘সেনাবাহিনীর সাথে এমওইউ স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে আগামী সোমবার থেকে চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ একক প্রকল্পের দুয়ার খুলবে। এ অনুষ্ঠানে নগর পিতা হিসেবে মেয়রকে দাওয়াত দিতে গিয়েছিলাম। আমরা একযোগে এই শহরকে এগিয়ে নিতে চাই।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ইস্যুতে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ও সিডিএ চেয়ারম্যান আব্দুচ ছালামের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়। মেয়র তাকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এই পরিস্থিতিতে সিডিএ চেয়ারম্যান দেখা করলেন মেয়রের সঙ্গে। তাদের এই সাক্ষাৎ ঐক্যমতের রাজনীতিতে কোনো সুফল আনছে কিনা তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন।