চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮

চট্টগ্রাম বন্দরের স্ক্যানিং অপারেটরদের পদত্যাগের হুমকি

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-২২ ১৮:০৩:৪৬ || আপডেট: ২০১৮-০৩-২২ ১৮:০৩:৪৬

চট্টগ্রাম বন্দরের ভেতরে কাস্টম হাউস পরিচালিত চারটি কনটেইনার স্ক্যানার ও ১০টি রেডিয়েশন ডিটেকশন ইক্যুইপমেন্ট মেশিনের ৬০ জন অপারেটর ও কর্মী চাকরি নিয়মিতকরণের দাবি জানিয়েছেন। অন্যথায় তারা একযোগে পদত্যাগের হুমকি দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সিস্টেম অপারেটর মো. জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মিজানুর রহমান চৌধুরী মিল্টন, বদরুল আহমদ সিদ্দিকী, সালাউদ্দিন আহমদ, জাহেদুল আলম, কাদের সোবহান, সোহেল রানা, আনোয়ার হোসেন, সুবীর মিত্র, অলীক দেওয়ান প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দীর্ঘ নয় বছর ধরে মেশিনগুলোতে এসজিএসের পক্ষে আমরা কর্মরত। কাস্টম কর্তৃপক্ষ নতুন টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পরবর্তী অপারেটর নিয়োগ করতে যাচ্ছে। অভিজ্ঞ জনবলকে নিয়োগের বাধ্যবাধকতা না থাকলেও কাস্টমস একটি পক্ষপাতমূলক টেন্ডারের মাধ্যমে নাম সর্বস্ব প্রতিষ্ঠানকে কাজ পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে।

সিস্টেম অপারেটর মো. জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ‘কাস্টম হাউসে চট্টগ্রামের কিছু স্বার্থান্বেষীমহল কোনো প্রকার যাচাই-বাছাই ছাড়া একটি প্রতিষ্ঠানকে এমনভাবে নিয়োগ দিচ্ছে যাতে অসাধু ব্যক্তির স্বার্থ হাসিল হবে। তাছাড়া এতে সরকারের গৌরবোজ্জ্বল ভাবমূর্তিও প্রশ্নের সম্মুখীন হবে। আমরা ২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিট করেছি, যা বিচারাধীন।’