চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ২০১৮

রাঙামাটিতে ফিল্মি কায়দায় দুই নারী নেত্রী অপহরণ

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১৮ ১৬:২৯:৪৩ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১৮ ১৬:২৯:৪৩

রাঙামাটিতে ফিল্মি কায়দায় একটি বাড়িতে সশস্ত্র হামলা চালিয়ে দুই নারী নেত্রীকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। তারা সবাই মুখোশ পরে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়ে আতঙ্ক তৈরি করে। এ সময় গুলিশে একজন আহতও হয়।

রবিবার সকাল সোয়া নয়টার দিকে জেলা সদরের কুতুকছড়ির আবাসিক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

হামলাকারীরা ঘরে আগুন দিয়ে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) সহযোগী সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙামাটি জেলা সাধারণ সম্পাদক দয়াসোনা চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাদের একটি ছাত্রীনিবাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়ক দিয়ে একদল দুর্বৃত্ত একটি গাড়িতে করে এসে সড়কের পশ্চিম পাশে গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম জেলা সভাপতি ধর্মসিং চাকমার বাড়িতে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে। এ সময় ধর্মসিং চাকমার পায়ে গুলি লাগে।

ঘটনাস্থলের পাশে আবাসিক বিদ্যালয়ের ছাত্রীনিবাসে ছিলেন মন্টি চাকমা ও দয়াসোনা চাকমা। সেখান থেকে তাদের অপহরণ শেষে ছাত্রীনিবাসে আগুন ধরিয়ে দেয় অস্ত্রধারীরা।

এই ঘটনার প্রতিবাদ ও অপহৃতদের মুক্তির দাবিতে হিল উইমেন্স ফেডারেশন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ ও ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি তাৎক্ষণিক রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সংযোগ সড়ক বন্ধ করে দেয়।

ইউপিডিএফ রাঙামাটি সমন্বয়ক সচল চাকমা জানান, হামলাকারীরা মুখোশ পরে ছিল। ফলে তাদেরকে চেনা যায়নি।

রাঙামাটি ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার এম কে জাহাঙ্গীর হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। তারা ফিরে আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।’