চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৩৮ বিদেশির পাসপোর্ট জব্দ

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১১ ১৫:৪৩:৫৭ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১১ ১৫:৪৩:৫৭

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত বিদেশি এনজিওতে কাজ করার অনুমতি (ওয়ার্ক পারমিট) না থাকায় ৩৮ বিদেশির পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। এ সময় এসব পাসপোর্টধারীকে উখিয়া থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

রোববার সকাল ৮টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত উখিয়ার মালভিটাপাড়া রাস্তার মাথায় বিশেষ চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করে ওয়ার্ক পাসপোর্ট বিহীন বিদেশিদের পাসপোর্টগুলো জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন উখিয়া-টেকনাফ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চাইলাউ মারমা।

জব্দ করা পাসপোর্টধারীরা বিদেশি এনজিও হোপ ফাউন্ডেশন, স্যাভ দ্যা সিলড্রেন, তুর্কি, এমএফএস, নরওয়ে খ্রিষ্টান এইড, রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল, এসিটি ইন্দোনেশিয়া, ডেনিস কাউন্সিল, এফএইচ ইন্টারন্যাশনাল ও মার্কস ইন্টারন্যাশনালসহ বেশ কয়েকটি বিদেশি এনজিওতে বিভিন্ন পদে চাকরি করছিলেন।

চাইলাউ মারমা জানান, আমাদের কাছে তথ্য ছিল অনেক বিদেশি ট্যুরিস্ট বা ব্যবসায়িক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে আসে। কিন্তু তারা রোহিঙ্গা ইস্যুতে কাজ করতে আসা এনজিওগুলোতে বিভিন্ন পদে চাকরি নেন এবং দিব্যি দায়িত্ব পালন করে যান। এসব জানার পর রোববার সকালে উখিয়ার মালভিটায় একটি তল্লাশি চৌকি বসিয়ে এনজিওদের গাড়িতে থাকা বিদেশিদের পাসপোর্ট চেক করা হয়। এতে ৩৮ জন বিদেশির এখানে কাজ করার কোনো অনুমতিপত্র না পেয়ে পাসপোর্টগুলো জব্দ করে পাসপোর্টধারীদের উখিয়া থানায় নেয়া হয়।

তবে এসব পাসপোর্টধারীদের কয়জন কোন দেশের নাগরিক, তাদের নাম ঠিকানা কী তা নির্দিষ্ট করে জানাননি এ পুলিশ কর্মকর্তা।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, এরা ট্যুরিস্ট ভিসায় বা ব্যবসায়িক পারমিটে বাংলাদেশে এসে কাজে যোগ দিয়েছে। এরপরও আমরা এদের আটক করছি না। যেহেতু তাদের এদেশে অবস্থানের মেয়াদ রয়েছে তাই সংশ্লিষ্ট এনজিও কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে এসব পাসপোর্টধারীদের ওয়ার্ক পারমিট করে নেয়ার তাগাদা দেয়া হচ্ছে। তাদের করা কাজটি বাংলাদেশি আইন বহির্ভূত এটি জানিয়ে প্রথমবারের মতো সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। ওয়ার্ক পারমিট না করলে পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।