চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮

আসামে বিক্ষোভের মুখে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১০ ১৭:৪৯:৪৭ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১০ ১৭:৪৯:৪৭

ভারতের আসাম রাজ্য সফরে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। আসাম থেকে অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীদের ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে ওই প্রতিবাদ করেছে হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদ নামে একটি সংগঠন। খবর দ্য টেলিগ্রাফের।

আসামের গুয়াহাটির ভিভান্তা বাই তাজ হোটেলে উঠেছেন বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট। ওই হোটেলের বাইরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদ।

আসামে বসবাসকারী অবৈধ বাংলাদেশি নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে তারা বিক্ষোভ করছিল। বিক্ষোভকারীরা এসময় ‘আবদুল হামিদ চলে যাও’ বলে স্লোগান দিতে থাকে।
এদিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

একজন প্রতিবাদকারী বলেন, আসামে অবৈধভাবে বসবাসকারী ৭০ লাখ ব্যক্তিকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে নিতে হবে। আসামের যে জমি বাংলাদেশের কাছে রয়েছে সেটিও ফিরিয়ে দিতে হবে। অন্যথায়, তার এই সফর অর্থহীন।

সংগঠনটির অভিযোগ বাংলাদেশ ভারতবিরোধী পাকিস্তান ও চীনের বিভিন্ন গোষ্ঠীকে আশ্রয় দিচ্ছে।

আসামের বিভিন্ন সংগঠন অবৈধ বাংলাদেশি শনাক্তকরণ ও তাদের ফেরত পাঠানোর দাবি জানিয়ে আসছে। তবে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে প্রত্যাবাসন চুক্তির অভাবে এটি একটি বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গেলো ১৫ জুলাই ২০০৪ সালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শ্রীপ্রকাশ জয়সাল রাজ্যসভাকে জানান, দেশটির ১৭ রাজ্যে ৩১ ডিসেম্বর ২০০১ সাল পর্যন্ত এক কোটি ২০ লাখ ৫৩ হাজার ৯৫০ জন অবৈধ বাংলাদেশি বাস করেন।

জয়সাল তখন দাবি করেছিলেন, কেবল আসামেই ৫০ লাখের বেশি অবৈধ বাংলাদেশি রয়েছে।

১ এপ্রিল ২০১৬ থেকে ৩১ মার্চ ২০১৭ পর্যন্ত আসাম থেকে মাত্র ৩৩ জন অবৈধ অভিবাসীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।