চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮

নার্স সংকটে চমেক হাসপাতালে সেবা ব্যাহত

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-০২ ১৪:৪২:৫৪ || আপডেট: ২০১৮-০৩-০৩ ০৯:৫৬:১০

সিটিজি টাইমস প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নার্স সংকট দীর্ঘদিনের। হাসপাতালে নার্সিং কর্মকর্তার এক হাজার ৩৬টি পদের বিপরীতে কর্মরত আছেন ৭৮০ জন। বাকী ২৫৬টি পদ শুন্য। এতে একদিকে যেমন কাঙ্খিত সেবা পাচ্ছেন না রোগীরা। অন্যদিকে রোগীর চাপে হিমশিমে কর্মরতরা।

জানা যায়, দীর্ঘ ১২ বছর বন্ধ হাসপাতালের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির নিয়োগ কার্যক্রম। এরমধ্যে অনেক কর্মচারীর চাকরিও শেষ হয়েছে। কর্মরতদের অনেকেই ছুটিসহ নানা কারণে অনুপস্থিত থাকছেন। তাই ঠিকমতো সেবা পাচ্ছেন না রোগীরা।

হাটহাজারী থেকে স্বামীর চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে আসা সৈয়দ নুর নামের এক নারী বলেন, ‘তিন দিন ধরে হাসপাতালে আছি। একজন নার্সকে কয়েকবার ডেকেও আনা যায় না। বেশি ডাকাডাকি করলে উল্টো ধমক দেয়।’

‘তাদের ব্যবহার খুব খারাপ। আমাদের মানুষ মনে করে না তারা। ইচ্ছে করে হাসপাতাল ছেড়ে চলে যায়। কিন্তু অসুস্থ স্বামীর দিকে তাকিয়ে সব সহ্য করতে হচ্ছে।’

পাঁচ দশক আগে ৫০০ শয্যার জনবলে কার্যক্রম শুরু হয় চমেক হাসপাতালের । বর্তমানে অনুমোদিত শয্যা সংখ্যা এক হাজার ৩১৩। কিন্তু জনবল এখনো ৫শ শয্যার। তাই জনবল সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন গড়ে আড়াই হাজার রোগী হাসপাতালে ভর্তি থাকে। কিন্তু সেই অনুপাতে জনবল খুবই কম। তাই ব্যহত হচ্ছে স্বাস্থ্যসেবা।

তবে জনবল সংকটের বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে চিটি দেয়ার কথা জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের জনবল সংকট রয়েছে। বিশেষ করে নার্সের সংকট বেশি। তাই সেবা পেতে কিছুটা বেগ পেতে হয় রোগীদের।’

‘নিয়োগ ব্যাপারে কিছু ঝামেলা রয়েছে। আমরা সেগুলো সমাধানে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছি। আশাকরি শীঘ্রই নতুন নিয়োগ হবে।’