চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮

হামলায় উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন পণ্ড: ককটেল বিস্ফোরণ, পুলিশের গুলি

প্রকাশ: ২০১৮-০২-২৭ ১৩:০৭:৩০ || আপডেট: ২০১৮-০২-২৭ ১৬:০৮:৩৫

ভালোই ভালোই শুরু হয়েছিল সবকিছু। সকাল ১০ টা সাড়ে ১০ টার মধ্যেই একে একে উপস্থিত হন প্রধান অতিথি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা। সোয়া ১১টায় বাইরে এসে সম্মেলন উদ্বোধন করেন অতিথিরা।

এরপর যথারীতি অনুষ্ঠান শুরু হয়। বেলা পৌনে ১২ টার দিকে শুভেচ্ছা বক্তব্য দিতে আসেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন। তখনই শুরু হয় উত্তেজনা, পাল্টাপাল্টি স্লোগান। তাদের থামাতে ব্যর্থ হয়ে একপর্যায়ে বক্তব্য বন্ধ করে দেন জাকির।

এই উত্তেজনার মাঝেই বক্তৃতা দিতে আসেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সাকিব হাসান সৈয়দ। এসময় সম্মেলন কক্ষের পশ্চিম-দক্ষিণ কোণায় আকস্মিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। একই সময়ে সম্মেলনের বাইরে ফজলে করিম চৌধুরীর অনুসারী দুই উপগ্রুপের এক গ্রুপ আরেক গ্রুপের উপর হামলা চালায়। এতে অন্তত ১০ জন ছাত্রলীগ কর্মী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে মুহূর্তের মধ্যে এখবর সম্মেলনস্থলে ছড়িয়ে পড়লে সেখানেও উত্তেজনা বেড়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একপর্যায়ে সম্মেলনের বাইরে নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে।

সাড়ে ১২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অতিথিরা সম্মেলনস্থল ত্যাগ করে বেরিয়ে গেছেন। সম্মেলনস্থলে ছাত্রলীগের একটি অংশ মঞ্চের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে বিক্ষোভ করছে। বিক্ষোভকারীরা তোমার আমার ঠিকানা, পদ্মা মেঘনা যমুনা, আমি কে তুমি কে বাঙালি…এমনতর স্লোগানের পাশাপাশি রাউজান থেকে নির্বাচিত সাংসদ ফজলে করিমের পক্ষে স্লোগান দিতে শোনা যায়।