চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পাহাড়ে অশান্তির রেষ চবিতে!

প্রকাশ: ২০১৮-০২-২১ ২১:৪৭:৪৯ || আপডেট: ২০১৮-০২-২২ ১৩:০৬:২৫

সিটিজি টাইমস প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সমর্থক দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে তিন শিক্ষার্থী আহত হন।

আহতরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সমিনয় চাকমা, পালি বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী নিউটন চাকমা ও একই বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী অমিত্র চাকমা। এরা তিনজনই পাহাড়ের রাজনৈতিক দল ইউনাইটেট পিপলর্স ডেমোক্রেটিক ফন্টে (ইউপিডিএফ) সমর্থক ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের সভাপতি সুনয়ন চাকমা অনুসারী। অন্যদিকে হামলাকারীরা জনসংহতি সমিতির সমর্থক ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুনিশি চাকমার অনুসারী বলে জানা গেছে।

এরআগে রবিবার বিকেলে দুই পক্ষে মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তখন আহত হন চারজন। উভয় ঘটনায় দুই পক্ষ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন।

এব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. আলী আজগর চৌধুরী বলেন, উভয় পক্ষ যেহেতু অভিযোগ দিয়েছে। আমরা তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব।

জানা যায়, ইউপিডিএফ ও সমর্থক ছাত্র পরিষদের সভাপতি সুনয়ন চাকমা কিছু অনুসারী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে রবিবার বিকেলে ফুটবল খেলতে যায়। এসময় জনসংহতি সমিতির সমর্থক ও ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুনিশি চাকমার অনুসারীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এরপর রাতে প্রশাসন দুই পক্ষকে শান্ত করে। পরে সোমবার সকাল দশটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই নম্বর গেইট এলাকায় একটি কটেজে ঘুমন্ত অবস্থায় ইউপিডিএফ সমর্থকদের উপর হামলায় চালায় তারা।

এব্যাপারে ইউপিডিএফ এক কর্মী বলেন, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি বনভোজন হয়। সেসময় একটি র‌্যাফেল ড্র হয়। ড্রতে একটি বই নিয়ে মূলত দুই পক্ষের বিরোধ। এজন্য সোমবার হামলার ঘটনা ঘটে। তবে পুর্ব শত্রুতার জেরে ছোট ব্যাপারটি নিয়ে তারা হামলা করেছেন বলে জানান তিনি।

এদিকে গত ৩ জানুয়ারি খুন হয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রামের ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) নেতা মিঠুন চাকমা। এজন্য দলটির নেতাকর্র্মীরা বিভক্ত ইউপিডিএফের (গণতান্ত্রিক) নেতৃত্বে থাকা নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ তুলেছে। এছাড়াও সম্প্রতি রাঙামাটির বিলাইছড়ি এলাকাতে দুই মারমা তরুণীকে নির্যাতনের অভিযোগ তুলে অশান্ত হয় পাহাড়ের পরিবেশ।