চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ২০১৮

ভাষার মাসে শহীদ মিনারে চবি শিক্ষার্থীর এ কেমন সেলফি!

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১২ ২৩:৩৯:০০ || আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ১৪:১৫:০২

সিটিজি টাইমস প্রতিবেদক

বহু আবেগ আর ত্যাগের বিনিময়ে বাঙালি জাতি পায় বাংলা ভাষার রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন থেকেই শুরু হয় আমাদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম। ৫২, ৬২, ৬৬, ৬৯ ও ৭০’র নির্বাচনে জয় আসে ভাষা আন্দোলনের জয়কে পুঁজি করেই। সর্বশেষ ‘৭১ এর মুক্তিযুদ্ধে রক্তক্সয়ী যুদ্ধের পর জাতি পায় স্বাধীন দেশ। বলা যায়, রাষ্টভাষা বাংলা থেকে পেয়েছি বাংলা ভাষার রাষ্ট্র।

ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে দেশে বিভিন্ন জায়গা নির্মিত হয় শহীদ মিনার। আর সেই শহীদ মিনারে গিয়ে আপত্তিজনক অঙ্গভঙ্গিতে সেলফি তোলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী। আর সেটি ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভাষার মাসে এধরণের কর্মকান্ডে সেলফিটি নিয়ে কয়েকদিন ধরে তোলপাড় চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে । অনেকেই ছবিটি শেয়ার করে নানান মন্তব্য লিখেছেন ।

ক্ষোভ প্রকাশ করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আশিক মোক্তাদির তার ফেইসবুকে লিখেন, ওনারা এতখানি আবেগে ফেঁসে গেছেন যে, ভুলেই গেছেন নিজেরা ঠিক কোথায় আছেন এখন। শহীদ মিনারে জুতাসহ, আর হাতে একটা জটিল সাইন। যুগের দোষ, এখনো বাচ্ছা, তবে সেলফি তুলতে শিখে গেছেন। বাঙালী বলতেই শহীদ মিনার। এটাকে এককভাবে শ্রদ্ধা করা গেলেও অশ্রদ্ধা করা যায় না। ইংরেজি শিখছি বলে রফিক জব্বারদের কথা কেমনে ভুলি?

তার কমেন্টে নাফিসা তাসনিম প্রেমা নামের একজন লিখেছেন, একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া ছেলে-মেয়ে বেশি ছোট না। নিশ্চয় তারা শহীদ মিনার এবং এই শহীদ মিনারের ইতিহাস ও ত্যাগের কথা জানে। আমাদের প্রাইমারি থেকে শেখানো হয়- ‘শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা কর’, ‘শহীদ মিনারের শ্রদ্ধা কর।’ এই তিনজন শিক্ষার্থী নিশ্চয় প্রাইমারি না পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে চলে আসেনি।
মুনজির এম সাদ নামের একজন শিক্ষার্থী ভাষার মাসে ওদের আঙ্গুলের সাইন আর জুতা নিয়ে শহীদ মিনারে প্রবেশ কী ইঙ্গিত করছে? এমন প্রশ্ন রাখেন।