চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

খালেদা জিয়াকে ডিভিশন প্রদানে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১১ ১১:৫৭:২৮ || আপডেট: ২০১৮-০২-১১ ১১:৫৭:৪৫

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে ডিভিশন প্রদানের ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। রোববার সকালে খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের করা আবেদনের শুনানি করে ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালত এ আদেশ দেন।

শুনানিতে আবেদনের পক্ষে অংশ নেন অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম, অন্যদিকে দুদকের পক্ষে অংশ নেন পিপি অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল।

শুনানিকালে অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া আদালতকে জানান, তিনি গতকাল ডিভিশন প্রদানের জন্য দরখাস্ত নিয়ে জেল সুপারের কার্যালয়ে রাত ১০টা পর্যন্ত অপেক্ষা করেছিলেন। কিন্তু জেল কর্তৃপক্ষ তার পিটিশন রাখেননি এবং কোনো ব্যবস্থা নেননি। তিনি এ ব্যাপারে হতাশা প্রকাশ করেন। তবে এ বিষয়ে গণমাধ্যমকেও কিছু জানাননি বলে অবগত করেন।

জবাবে দুদকের আইনজীবী আইনের বিধান উল্লেখপূর্বক আদালতকে বলেন, এ ব্যাপারে কারা কর্তৃপক্ষ নিজ উদ্যোগে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন না। কেবল যথাযথ আদালত অথবা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষই কেবল এ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দিতে পারেন।

আদালতে অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন দাখিলকৃত আবেদনটি বিজ্ঞ আদালত সুপারিশসহ জেল কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করতে পারেন মর্মে বক্তব্য রাখেন।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত কারাবিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের দাখিলকৃত আবেদনটি কারাকর্তৃপক্ষের নিকট পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের নামে ২ কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের দায়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশ ঘোষণা করেন ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালত। একই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের পাশাপাশি বিচারক কারাদণ্ডাদেশ দেন দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকেও। তাকে দেয়া হয়েছে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড। ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে মামলার অন্য চার আসামি— সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকেও।