চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দক্ষিণ রাউজানে হচ্ছে আড়াই শষ্যার হাসপাতাল

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৯ ২৩:৩৪:৫১ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৯ ২৩:৩৪:৫১

রাউজান প্রতিনিধি

রাউজানের নোয়াপাড়ায় রেলপথ মন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি বলেছেন দক্ষিণ রাউজানে তিন হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে চার’শ ৫০ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সাব স্টেশন হচ্ছে। অল্প সময়ের মধ্যে এটির ঠেণ্ডার হবে। আগেই প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ২৬ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র, পিংক সিটি, এখানে বেসরকারি উদ্যোক্তরা প্রতিষ্ঠা করেছেন আধুনিক যন্ত্রপাতি সমৃদ্ধ ৫০ শষ্যার পাইওনিয়ার হাসপাতাল। এখন উদ্বোধন করা হচ্ছে এই হাসপাতালে ফিজিওথেরাপি এণ্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টার। অনুষ্ঠানে ঘোষনা এসেছে এই হাসপাতালকে আড়াই’শ বেডের একটি পূর্ণাঙ্গ সেবা দানের আরো আধুনিক হাসপাতালে উন্নিত করার। পাইওনিয়ারের এই উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই, আমি বিশ্বাস করি শহরতলী ও মফস্বলের মানুষ এই হাসপাতাল থেকে সব ধরণের উন্নত সেবা নিশ্চিত করতে পারবে। তিনি বলেন এই উদ্যোগ রাউজানকে আরো সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাবে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে নোয়াপাড়া পাইওনিয়ার হাসপাতালে ফিজিওথেরাপি এণ্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টার নতুন সংযোজিত ফিজিওথেরাপি সেন্টার উদ্বোধন করতে এসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সুধি সমবেশে এসব কথা বলেন। হাসপাতালের চেয়ারম্যান শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা,মোহাম্মদ ফজল করিম বাবুলের সভাপতিত্বে ও ডা. সুমন চৌধুরী সান্টুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরো বলেন রাউজানের রাজধানী হচ্ছে নোয়াপাড়া। দক্ষিণাংশের এই অঞ্চলকে আরো সমৃদ্ধির শীর্ষে নিয়ে যেতে করা হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন, শিশু বিকাশ কেন্দ্র,আইটি পাক,খাদ্য গুদাম,হাইওয়ে ও দক্ষিণ রাউজান নতুন থানা, চুয়েট পর্যন্ত রেল লাইন সম্প্রসারণ। তিনি চিকিৎসা সেবা দানের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, রাঙ্গামাটি সড়ক পথে দুঘটনায় গত এক বছরে ষাটজন মানুষ মারা গেছে। তাৎক্ষণিক চিকিৎসা সেবা না পাওয়ার কারণে এত মানুষের মৃত্যু হয়েছে। রাঙ্গামাটি সড়কের পার্শ্ববর্তী হাসপাতাল সমূহে আধুনিক চিকিৎসা দেয়ার মত যন্ত্রপাতির অভাব রয়েছে। সেই তুলনায় সর্বাধিক ব্যস্ততম সড়ক কাপ্তাই সড়ক পথে নোয়াপাড়া পাইওনিয়ারের মত উন্নত যন্ত্রপাতি সমৃদ্ধ হাসপাতাল থাকায় দুঘর্টনায় বেশির ভাগ আহত ব্যক্তি চিকিৎসা সেবা নিয়ে জীবন রক্ষা করতে পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ডা.ফজল করিম বাবুল বলেন এই প্রতিষ্ঠানে সংযোজন করা ফিজিওথেরাপি সেন্টারে আধুনিক চিকিৎসা সেবার জন্য উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে নিয়ে আসা হয়েছে আধুনিক সব যন্ত্রপাতি। সেগুলোর মধ্যে কোনো কোনো যন্ত্রপাতি বাংলাদেশে এই পাইওনিয়ারেই প্রথম। তিনি ঘোষনা দেন অতি শিঘ্রীই পাইওনিয়ার আড়াই’শ বেডের হাসপাতাল হবে। এজন্য বিশাল অর্থ বাজেট নিয়ে নামা হচ্ছে। প্রধান অতিথি সভাপতির এই বক্তব্যের সাথে একমত পোষন করে বলেন নতুন সংযোজন করা একাধিক যন্ত্রপাতি তিনি দেখেছেন সিঙ্গাপুরের মত উন্নত হাসপাতালে। তিনি আড়াই বেড হাসপাতাল করার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন এব্যাপারে আমি উদ্যোক্তাদের সবধরণের সাহার্য্য সহযোগিতা দিয়ে যাব।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শুভময় দাশ রাজু, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর টিপু সুলতান, নোয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহ্জ্বা দিদারুল আলম। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উরকিরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল, নোয়াপাড়ার সাবেক চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম,ডা. উর্মি আলম, ডা.ফাহাদ ইসলাম, ডা. সৌরভ চক্রবর্তী, মঞ্জুর হোসেন,কামরুল ইসলাম বাবু, মোহাম্মদ ওসমান, আইনজীবি দিপক দত্ত,উরকিরচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি দুলাল বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, নোয়াপাড়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান বাবুল মিয়া মেম্বার, উত্তর ও দক্ষিণের পূজা উদযাপন পরিষদের দুই সম্পাদক সুমন দে, ম্যালকম চক্রবর্তী।