চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

চার স্বজনকে যা বললেন কারাবন্দি খালেদা

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৯ ২১:৪২:৫৫ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৯ ২১:৪২:৫৫

কারাগারে যাবার পর স্বজনরা দেখা করতে গেলে তাদের কাছ থেকে দেশের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে অবগত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। শুক্রবার পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে বিএনপি প্রধানের সঙ্গে দেখা করেন তার স্বজনরা। এসময় বেগম খালেদা জিয়া দেশের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে জেনে তাদেরকে ধৈর্য ধারণের কথা বলেন। স্বজনরা হলেন- শামীম ইস্কান্দারের স্ত্রী কানিজ ফাতেমা ও তার ছেলে, সাইদ ইস্কান্দারের স্ত্রী ও খালেদা জিয়ার মামি।

এদিন বেলা সাড়ে ৩টার দিকে তারা কারাগারে প্রবেশ করেন। বিকেল সোয়া ৫টার দিকে তারা বেরিয়ে আসেন।

বেগম জিয়ার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করার জন্য কারা কর্তৃপক্ষ তাদের দুপুর একটায় সময় দিয়েছিলেন। কিন্তু বিএনপির সিনিয়র নেতাদের পরামর্শে তারা দেরিতে কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যান।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়ার সাজার প্রতিবাদে দল যে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিল, সে সম্পর্কে খালেদা জিয়াকে অবহতি করার জন্য স্বজনরা দেরি করে যান।

কারাগারে স্বজনরা রাজধানীতে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি, বিদেশি সংবাদমাধ্যমকে মহাসচিবের ব্রিফ করাসহ সারা দিনের দেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর বেগম খালেদা জিয়াকে অবহিত করেন।

এসময় বেগম জিয়া তাদেরকে সান্ত্বনা দিয়ে মনোবল ধরে রাখতে বলেন। একই সঙ্গে নিজের আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করারও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন খালেদা জিয়া।

ঢাকার জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, শুক্রবার খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা দেখা করার আবেদন করেন। দুপুরে পরে তাদের দেখা করার সুযোগ দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, তারা দু-একদিনের মধ্যে খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করবেন।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৫ বছর এবং তারেক রহমানসহ এ মামলা বাকি আসামিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার পুরনো ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসে মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ের পরই খালেদা জিয়াকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়।