চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাউজানে পৃথক অভিযানে আটক ৮

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৮ ২০:২৯:১২ || আপডেট: ২০১৮-০২-০৯ ১৫:২৭:৩০

খালেদার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি  মাঠে না থাকলেও তৎপর ছিল পুলিশ!

মো. হাবিবুর রহমান
রাউজান প্রতিনিধি

বিএনপি’র চেয়্যারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলায় আদালতের দেয়া রায়কে (পাঁচ বছরের জেল) কেন্দ্র করে রাউজানে বিএনপির নেতাকর্মীরা মাঠে না থাকলেও তৎপর ছিল পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে রাউজান থানা পুলিশ ১২টি মোটর সাইকেল ও ৩টি ভ্যান নিয়ে টহল বের করে। উপজেলা গুরুত্বপূর্ণ সড়কে টহল দিয়ে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে থানায় ফিরে পুলিশ। রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্লাহ বলেন, রায়কে ঘিরে রাউজানের কোথাও কোন অপৃতিকর ঘটনা ঘটেনি। নাশকতা ঠেকাতে তৎপর ছিল পুলিশ। এদিকে গত বুধবার দিবাগত রাতে রাউজান থানার ওসি কেপায়ত উল্লাহ’র নেতৃত্ব পুলিশের বিশেষ অভিযানে এন ডি পি এক ও জামাতের এক নেতাসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। উপজেলার নোয়াপাড়া,গচ্চি নয়াহাট,পাহাড়তলী,কদলপুর, কাগতিয়া, হলদিয়া, ডাবুয়াসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে গত (৭ ফেব্রুয়ারি) বুধবার রাতে ও বৃহস্পতিবার ভোরে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন রাউজানের এন ডি পির শীর্ষ সন্ত্রাসী বিধান বড়ুয়ার সেকেন্ড ইন কমান্ড মজলিস মিয়া (৫০), ফজল আহম্মদ(৪০), সোনামিয়া(৩৫), জামাতের ইসলামীর তালিকাভোক্ত আসামী ফিরোজ আহম্মদ(৪৫), মোঃ ইলিয়াছ (৪০), সাখাওয়াত হেসেন (৩৫), মোঃ মনছুর (৪২), নাশকতার ইন্ধনদাতা মোঃ গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আটককৃতদের ব্যাপারে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা কেপায়ত উল্লাহ জানাতে চাইলে তিনি বলেন, বিএনপির চেয়্যারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে রাউজানে সম্ভাব্য নাশকতা এড়াতে পুলিশের নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৮জনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে মজলিস মিয়া ও জামাতের তালিকাভুক্ত আসামী ফিরোজের নামে রাউজানথানাসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। ধৃত ৫জনকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।