চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ডোপপাপী ইউসুফ পাঠান

প্রকাশ: ২০১৮-০১-০৯ ১৮:০৫:৪৪ || আপডেট: ২০১৮-০১-০৯ ১৮:০৫:৪৪

ডোপিংয়ের অভিযোগে মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) ইউসুফ পঠানকে ৫ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করল ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিসিসিআই)। ৩৫ বছর বয়সী হার্ডহিটার ব্যাটসম্যানের ইউরিনে ‘টার্বুটালাইন’ নামক নিষিদ্ধ ড্রাগের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। যেটা সাধারণত কফের সিরাপে ব্যবহার করা হয়।

এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিসিআই। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) একাদশ আসরে খেলতে পারবেন না কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) এই তারকা ক্রিকেটার।

বিবৃতিতে বিসিসিআই জানিয়েছে,‘ গত বছরের মার্চে বিসিসিআই-এর অ্যান্টি ডোপিং প্রোগ্রামের আওতায় দিল্লিতে পাঠানের ইউরিন টেস্ট করানো হয়। টেস্টে টার্বুটালাইন নামক পদার্থের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। টার্বুটালাইন এমন এক পদার্থ যা ইনডোর ও আউটডোর উভয় প্রতিযোগিতায় ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সি কর্তৃক নিষিদ্ধের তালিকায় রয়েছে।’

গত বছরের অক্টোবরে পাঠানের বিরুদ্ধে বিসিসিআই’র অ্যান্টি-ডোপিং বিধানের আওতায় অ্যান্টি-ডোপিং নীতি ভঙ্গের অভিযোগ আনে কমিশন। এর জবাবে পাঠান জানিয়েছিলেন, তিনি ভুলক্রমে এমন ওষুধ গ্রহণ করেছেন যেটিতে টার্বুটালাইন ছিলো। কিন্তু তার চিকিৎসায় যে ওষুধ দেয়া হয়েছে তাতে কোন নিষিদ্ধ পদার্থ নেই।

বিসিসিআই পাঠানের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হয়েছে যে, তিনি অসাবধানতাবশতঃ এই ওষুধ গ্রহণ করেছেন। পাঠান পারফরম্যান্সবর্ধক ড্রাগ হিসাবে এটি নেননি। সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে এবং একজন বিশেষজ্ঞের মতামতে বিসিসিআই পাঠানের ব্যাখ্যা গ্রহণ করে। সেই সাথে কমিশন পাঠানকে ৫ মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে।