চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮

খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ

প্রকাশ: ২০১৮-০১-০৭ ১১:৪৬:১৪ || আপডেট: ২০১৮-০১-০৭ ১১:৪৭:১১

খাগড়াছড়িতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) ডাকে দ্বিতীয় দিনের মতো সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ চলছে। গতকাল ইউপিডিএফের সংগঠক মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এ অবরোধের ডাক দেয় সংগঠনটি।

অবরোধের ফলে জেলা শহরের সঙ্গে দূরপাল্লার সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়াও জেলার আভ্যন্তরীণ সড়কেও যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ স্থানে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার সকালে জেলা শহরের অপর্ণা চৌধুরী পাড়ার বাসার সামনে থেকে ডেকে নিয়ে স্লুইচ গেইট নামক এলাকায় মিঠুন চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। মিঠুন প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফের সংগঠক ছিলেন। শুরু থেকে এ হত্যাকাণ্ডের জন্য নবগঠিত ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক সংগঠনকে দায়ী করছে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ।

ইউপিডিএফ’র অন্যতম সংগঠক মিঠুন চাকমাকে হত্যার প্রতিবাদ, দলীয় অফিসে শ্রদ্ধা নিবেদনে বাধাদান এবং শনিবারের (৬ জানুয়ারি) সড়ক অবরোধে প্রশাসনের টিয়ারসেল নিক্ষেপের প্রতিবাদে আরও একদিন সড়ক অবরোধ বাড়ানো হয়। অবরোধ চলবে সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

সকাল থেকে খাগড়াছড়ি জেলার অভ্যন্তরীণ ও দূর পাল্লার সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে শহরের মধ্যে অটোরিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে। সকালে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাসগুলো পুলিশি প্রহরায় খাগড়াছড়িতে প্রবেশ করেছে। অবরোধের সমর্থনে জেলার বিভিন্ন স্থানে পিকেটিং এর খবর পাওয়া গেছে। জেলার সব গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গত বুধবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে প্রসিত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’র অন্যতম সংগঠক মিঠুন চাকমাকে খাগড়াছড়ি শহরের স্লুইচ গেইট এলাকায় গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিজ দলের বিদ্রোহীদের দায়ী করেছে ইউপিডিএফ।

এর আগে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে গত নভেম্বরে দুই ভাগে বিভক্ত হয় দলটি। সংগঠনের বিদ্রোহীদের নিয়ে ‘গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ’ নামে আত্মপ্রকাশ করে নতুন আরেকটি সংগঠন।

এর আগে গতকাল বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়িতে প্রথম দিনের সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হয়।গতকালের অবরোধ চলাকালে পুলিশ-পিকেটার সংঘর্ষে আহত হয়েছিলেন তিন পুলিশ সদস্য। ইউপিডিএফর কেন্দ্রীয় নেতা মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে এ অবরোধের ডাক দেয় সংগঠনটি।

গতকালের অবরোধের কারণে আভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লা সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। আকস্মিক সড়ক অবরোধে বেকায়দায় পড়েছেন শত শত পর্যটক। সকাল ১০টার দিকে শহরের চেঙ্গী ব্রিজ এলাকায় পুলিশ-পিকেটার সংঘর্ষে তিন পুলিশ আহত হয়েছে।

এছাড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে পর্যটকবাহী গাড়ির ওপর পিকেটারদের ঢিল ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নিরাপত্তা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। গত ৩ জানুয়ারি খাগড়াছড়ি শহরের স্লুইস গেইট এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে ইউপিডিএফ এর কেন্দ্রীয় নেতা মিঠুন চাকমা নিহত হন।