চট্টগ্রাম, , বুধবার, ২২ আগস্ট ২০১৮

সহকারী জজ পদে সুপারিশ প্রাপ্ত হলেন ফটিকছড়ির লেলাং’র জিয়াউল হক

প্রকাশ: ২০১৮-০১-০১ ১৭:০০:২২ || আপডেট: ২০১৮-০১-০১ ১৭:০০:২২

সাধারন জনগনের ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখতে সকলের কাছে দোয়ার প্রত্যাশা

মীর মাহফুজ অানাম
সিটিজি টাইমস প্রতিবেদক

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিসের সহকারী জজ নিয়োগের ১১তম ব্যাচের লিখিত পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে ফটিকছড়ি উপজেলার লেলাং ইউনিয়নের মোহাম্মদ জিয়াউল হক ৩৮ তম মেধাক্রমে উত্তীর্ণ হয়ে সহকারী জজ হিসাবে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন। তিনি শাহনগর গ্রামের করম আলী মিস্ত্রীর বাড়ীর মোহাম্মদ জাহেদুল হক ও হালিমা বেগমের পুত্র।

শিক্ষা জীবনে তিনি শাহনগর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি। ফটিকছড়ি ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচ.এস.সি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগ থেকে এল.এল.বি (সম্মান) ও এল.এল.এম ডিগ্রী অর্জন করেন।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে জিয়াউল হক বলেন, ফলাফল জানার জন্য গভীর উৎকন্ঠা নিয়ে অপেক্ষা করছিলাম, শুনার পর জীবনের বাঁকে বাঁকে রেখে আসা সংগ্রামের চিহ্নগুলো চোখের সামনে ঝাপসা হয়ে ভেসে উঠেছিল ৷ কতো পরিশ্রম করে এতটুকু পথ পাড়ি দিয়েছি তা কালো অক্ষরে প্রকাশ করা অসম্ভব ৷ তবে একটা কথায় বলতে চাই নিষ্ঠার সাথে কোন সফলতার শিখরে পৌঁছাতে চাইলে তা অবশ্যই সম্ভব ৷ বাংলাদেশের সাধারণ জনগনের জন্য ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় যেন ভূমিকা রাখতে পারি সকলের কাছে সেই দোয়ার প্রত্যাশা করি ৷

উল্লেখ্য, অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১৪৩ জন লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। রোববার (৩১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ জুডিশিয়াল কাউন্সিল সচিবালয়ের ওয়েবসাইটে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শেখ আশফাকুর রহমান স্বাক্ষরিত এ লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়।